অপহৃত শিশু পরাগ মন্ডলকে কেরানিগঞ্জের আটি থেকে উদ্ধার ॥ ৫০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দেওয়ার কথা বলেছে অপহৃতের পরিবার

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ ৫০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দেওয়ার পর ছাড়া পেল অপহৃত ৬ বছরের শিশু পরাগ মণ্ডল। গতকাল ১৩ নভেম্বর দিবাগত রাত ১২টার দিকে কেরানীগঞ্জের আঁটিবাজার মিল এলাকায় তাকে ছেড়ে দেয় অপহরণকারীরা। খবর বাংলাদেশ নিউজ২৪ডট কমের।

সূত্র জানান, অপহরণকারীরা প্রথমে মুক্তিপণ হিসেবে ২ কোটি টাকা দাবি করলেও ৫০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দিয়ে শিশু পরাগ মণ্ডলকে উদ্ধার করা হয়।

এ বিষয়ে স্কয়ার হাসপাতালে উপস্থিত পরাগের বাবার বন্ধু সাংবাদিকদের জানান, অপহরণকারীরা মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পরাগের বাবাকে ফোন করে জানায় যে, পরাগকে সাভারের আমিনবাজারে রাখা হয়েছে। এ সময় তারা মুক্তিপণ হিসেবে ২ কোটি টাকা দাবি করে। এরপর তিনি তা পুলিশকে জানালে অভিযানে নামে পুলিশ।

অন্য একটি সূত্র জানিয়েছে, সন্ধ্যার পর মুক্তিপণ হিসেবে ৫০ লাখ টাকা দেওয়ার পর পরাগের বাবাকে ফোনে জানানো হয় যে, কেরাণীগঞ্জের আটিপাড়া এলাকায় পরাগকে পাওয়া যেতে পারে।
এর মঙ্গলবার দিনগত রাত ১২টার দিকে আটিপাড়ার একটি দোকানের সামনে অন্ধকার এলাকায় পরাগকে রেখে যায় অপহরণকারীরা।

এদিকে, পরাগের আত্মীয়-স্বজনরা জানিয়েছেন, ধারণা করা হচ্ছে, পরাগকে চেতনানাশক ওষুধ খাওয়ানো হয়েছিল। সে কারণে, তার মধ্যে ঝিমুনিভাব লক্ষ করা গেছে। এর পরই তাকে রাজধানীর পান্থপথের স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সেখানে পরাগের মা-বাবা, আত্মীয়-স্বজন, পুলিশ, র‌্যাব, গণমাধ্যমকর্মী উপস্থিত রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ১১ নভেম্বর সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে মা, বোন ও গাড়িচালককে গুলি করে ছয় বছরের এই শিশুকে অপহরণ করে মোটরসাইকেল আরোহী দুর্বৃত্তরা। রাজধানীর উপকণ্ঠ কেরানীগঞ্জের শুভাঢ্যা পশ্চিমপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। ওই দিন অপহরণকারীদের গুলিতে আহত হন পরাগের মা লিপি মণ্ডল (৩৩), বোন পিনাকি মণ্ডল (১১) ও গাড়িচালক নজরুল ইসলাম (৩৫)।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...