বিএসএফের গুলি ॥ ফুলবাড়ী সীমান্তে উত্তেজনা

ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি ॥ ভারতীয় সীমান্তরক্ষি বাহিনী বিএসএফ আবারও গুলি বর্ষণ করেছে। সমপ্রতি বিএসএফ মাত্রাতিরিক্ত বাড়াবাড়ি করছে। সীমান্ত এলাকার সাধারণ মানুষরকে যখন তখন ধরে নিয়ে যাচ্ছে। কখনও বর্বরোচিত ভাবে নির্যাতন চালাচ্ছে আবার কখনও গুলি করে হত্যা করছে। এই অবস্থা চলছে পুরো সীমান্ত এলাকা জুড়ে। বাংলাদেশ বার বার প্রতিবাদ করছে, পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে কিন্তু ফলাফল শূন্য।

জানা গেছে, কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের বালাতাড়ি সীমান্তে ভারতীয় বিএসএফ ২ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করেছে। জানা যায়, ২৭ ফেব্রুয়ারি ভোর ৬টায় ওই সীমান্তের আন্তর্জাতিক পিলার ৯৩১-এর ২নং সাব পিলারের কাছ থেকে ভারত ও বাংলাদেশী গরু চোরাকারবারিদের লক্ষ্য করে ভারতীয় নটকোবাড়ী ক্যাম্পের বিএসএফ গুলিবর্ষণ করে বলে প্রত্যক্ষদর্শী ও সীমান্তবাসীরা জানিয়েছে। এদিকে পিলার চেকিং ও যৌথ টহল জোরদার করা হয়েছে। সকালে ৯৩১-এর ২নং সাব পিলার থেকে ৯৩৩-এর ১৭নং সাব পিলার বরাবর বিজিবি ও বিএসএফের মধ্যে দুই দফা বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে ভারতের পক্ষে নেতৃত্ব দেন নটকোবাড়ী বিএসএফ ক্যাম্প কমান্ডার ইন্দো মোহন সিং এবং বাংলাদেশের মধ্যে নেতৃত্ব দেন ৪৫ বিজিবির অধীনে বালারহাট বিওপির কমান্ডার জাকির হোসেন । গুলিবর্ষণের ব্যাপারে প্রতিবাদ জানানো হলে বিএসএফ জানায়- গুলি নয় রাবার বুলেট ছোড়া হয়েছে। উল্লেখ্য, ১৫ ডিসেম্বর ভোরে একই সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে এলাকার ইসমাইল হোসেনের পুত্র আলমগীর নিহত হয়। এই অবস্থার অবসান চেয়েছে সীমান্ত এলাকার বাসিন্দারা।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...