অমানবিকতা: মৃত্যু হলেও অভিবাসীদের উদ্ধারে নিষেধাজ্ঞা ইন্দোনেশীয়ার

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ অমানবিকতা যেখানে ভুলুন্টিত সেই ইন্দোনেশীয়াতে আজ মানুষের মৃুত্যুও যেনো তাদের মনকে গলাতে পারেনি। মৃত্যু দেখেও অভিবাসীদের উদ্ধারে নিষেধাজ্ঞা বহাল রেখেছে ইন্দোনেশীয়া।

Inhumanity

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ইন্দোনেশীয়া সরকার সে দেশের মাঝিদের প্রতি নির্দেশ দিয়েছে বলেছে যে, বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের অভিবাসীরা সাগরে ডুবে মরে গেলেও তাদের উদ্ধার করা যাবে না। ইন্দোনেশীয়ার আচেহ প্রদেশের উপকূলে যেসব জেলে মাছ ধরেন তাদের প্রতি এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়।

Inhumanity-2

সারাবিশ্ববাসী আজ অধিবাসীদের এমন এক পরিস্থিতিতে উদ্বিগ্ন। গত এক সপ্তাহে প্রায় ৭শ’ বাংলাদেশী ও রোহিঙ্গাদের স্থানীয়রা উদ্ধার করেছে বলে বিবিসির খবরে বলা হয়। এ পর্যন্ত ১৫শ’ জনকে আশ্রয় কেন্দ্রে রাখা হয়েছে।
বিবিসি বলেছে, বাংলাদেশের মানুষ কাজের সন্ধানে আর মায়ানমারের মানুষ অভাবের তাড়নায় সমুদ্র পাড়ি দিয়ে ভিনদেশে পাড়ি দিতে যাচ্ছিলেন।

Inhumanity-3

সামরিক মুখপাত্র ফুয়াদ বাসিয়া নামের এক সেনা কর্মকর্তা বলেছেন, ‘জেলেরা অভিবাসীদের খাদ্য, জ্বালানি, পানি দিয়ে, এমনকি অভিবাসীদের নৌকা নষ্ট হয়ে গেলে তা ঠিক করেও দিতে পারবে। কিন্তু তাদের কোনো অবস্থাতেই তীরে নিয়ে আসতে পারবে না। আর নিয়ে আসলে তা হবে অবৈধ।’

ইন্দোনেশীয়ার এমন মনোভাবে আন্তর্জাতিক মানবাধিকারগুলো কড়া সমালোচনা করেছে। এমন মানবিক বিপর্যয়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য বিশ্ববাসীদের আহ্বান জানানো হয়েছে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...