নতুন আইন আসছে: ব্যক্তিগত ছবি তুললেই ১০ বছর কারাদণ্ড

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ নতুন আইন আসছে। যে আইনে কারো ব্যক্তিগত ছবি তুললেই ১০ বছর কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। প্রস্তাবিত ‘সাইবার নিরাপত্তা আইন-২০১৫’ খসড়ায় এই বিধান রাখা হয়েছে।

The new law

নতুন আইন আসছে। যে আইনে কারো ব্যক্তিগত ছবি তুললেই ১০ বছর কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। প্রস্তাবিত ‘সাইবার নিরাপত্তা আইন-২০১৫’ খসড়ায় এই বিধান রাখা হয়েছে। সখের বশে কোনো উদ্দেশ্য ছাড়াই হয়তো অনেকে অন্যের ব্যক্তিগত ছবি তুলেন না জানিয়ে। ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সেইসব ছবি প্রকাশও করেন অনেক সময়। কিন্তু এবার সাবধান! এমন ঘটনায় যে কেও ফেঁসে যেতে পারেন অনায়াসেই। এমন অভিযোগ প্রমাণ হলেই ভোগ করতে হবে ১০ বছরের কারাদণ্ড। আর এ ধরনের অভিযোগের পর একবার পুলিশের হাতে ধরা খেলেই জামিন মিলবে না মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া অবধি। তবে অনিচ্ছাকৃতবাবে ঘটেছে সেটি প্রমাণ করতে পারলে বেঁচে যেতে পারেন সেই ব্যক্তি। শুধু তাই নয়, অন্যের ব্যক্তিগত ছবি, ভিডিও হ্যাকিং করলেও একই শাস্তি ভোগ করতে হবে গোপনীয়তা লঙ্ঘনের দায়ে- এই আইনে এমনই বিধান রাখা হয়েছে।

প্রস্তাবিত ‘সাইবার নিরাপত্তা আইন-২০১৫’ খসড়ায় এমন বিধান রাখা হয়েছে। খসড়া আইনটির ১৪ ধারায় গোপনীয়তা লঙ্ঘনের অপরাধে এই শাস্তির কথা বলা হয়েছে।

ওই খসড়া আইনের ১৪ ধারায় বলা হয়েছে, ‘(১) কোনো ব্যক্তি ইচ্ছাকৃতভাবে বা জ্ঞাতসারে অন্য কোনো ব্যক্তির অনুমতি ছাড়া তাহার ব্যক্তিগত ছবি তোলে, প্রকাশ করে অথবা প্রেরণ করে; তাহা হইলে এমন কার্য ব্যক্তিগত গোপনীয়তা লঙ্ঘনের পরিস্থিতির ক্ষেত্রে অপরাধ বলিয়া গন্য হইবে। (২) কোনো ব্যক্তি উপ-ধারা (১) এর অধীন হ্যাকিং অপরাধ করিলে তিনি অনধিক ১০ বৎসর কারাদণ্ডে, বা অনধিক ১০ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিতে হইবে।’

Advertisements
Loading...