বুলগেরিয়ার এক সোনার নদীর গল্প!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এবার সোনার নদীর গল্প রয়েছে আপনাদের জন্য। এই নদীটি পাওয়া গেছে বুলগেরিয়া। যে নদীর পানি থেকে পাওয়া যাচ্ছে সোনার কণা!

stories of gold

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, বুলগেরিয়ায় নদীতে পাওয়া যাচ্ছে সোনার কণা। েএমন খবরে মানুষের ভীড় পড়ে গেছে ওই নদীতে। সোনার কণা সংগ্রহে লেগে রয়েছে শত শত মানুষ। বুধবার বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এই তথ্য দেওয়া হয়।

দেশটির এক সরকারি প্রতিবেদনও গত আগস্টে বলা হয়েছিল, বুলগেরিয়ার প্রায় সব নদীতে সোনার কণা রয়েছে। বুলগেরিয়ায় নদীতে থাকা এইসব সোনার কণা প্রাচীন থ্রেশানদের তৈরি করা অলংকারের- এমন ধারণা করা হচ্ছে।

stories of gold-2

তবে বুলগেরিয়ায় কাঁকর-নুড়ি হতে সোনার কণা পৃথক করার কাজে জড়িত ব্যক্তিদের একটি সংগঠনের প্রধান কিরিল স্তামেনভের ভাষ্য মতে, নদীতে সব সময়ই সোনা ছিল। আজকের বুলগেরিয়া থ্রেশান সভ্যতার অধীনে ছিল বলেই সোনা পাওয়া যাচ্ছে, সে বিষয়টি ঠিক নয়।

stories of gold-3

কিরিল স্তামেনভ বলেন, ‘বুলগেরিয়ার প্রায় সকল শ্রেণী-পেশার মানুষকেই এই সোনার চাকচিক্য আকৃষ্ট করছে।’

এ খবর জনগণের মধ্যে প্রচার পাওয়ায় নারী-পুরুষরা নদীতে নামছে। এই মূল্যবান ধাতু পাওয়ার আশায় ধৈর্য নিয়ে কাঁকর-নুড়ি ধোয়ার কাজ করছে।

এদিকে নদী হতে সোনার কণা সংগ্রহ অনেকের আগ্রহের বিষয় হয়ে উঠেছে। ৩১ বছর বয়সী এমনই একজন নিকোলে কস্তাদিনোভ। তিনি ও তার স্ত্রী বছরজুড়ে এই কাজ করেন। প্রায় দুই বছর হলো এই কাজে লেগে রয়েছেন তারা। কস্তাদিনোভ বলেন, সোনার টান এক দুর্নিবার।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...