স্ত্রী হত্যার দায়ে ভারতীয় ও পাকিস্তানীকে ফায়ারিং স্কোয়াডে হত্যার নির্দেশ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ স্ত্রী হত্যার দায়ে ভারতীয় ও পাকিস্তানীকে ফায়ারিং স্কোয়াডে হত্যার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দুবাইয়ের এক আদালত এই নির্দেশ দিয়েছে।

killing his wife

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়, দুবাইয়ে আদালত এক ভারতীয় নাগরিক ও তার পাকিস্তানী বন্ধুু দু্থজনকেই সামনে হতে গুলি করে মারার নির্দেশে দিয়েছে। এই দু’জনের অপরাধ, তারা বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের কথা জেনে ফেলার কারণে স্ত্রীকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছিল।

জানা যায়, ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে ওই ভারতীয় নাগরিক এবং পাকিস্তানী নাগরিক মিলে এক নারীকে হত্যা করেছিল। ওই নারী ওই ভারতীয় নাগরিকের স্ত্রী ছিলেন। স্বামীর বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক জেনে ফেলার কারণেই তাকে বেধড়ক মারধর করে ওই ভারতীয় ব্যক্তি।

এরপর স্ত্রীকে গলা টিপে খুন করার পর লাশ ব্যাগে ভরে দুবাইয়ের উপকণ্ঠে একটি ফাঁকা জায়গায় ফেলে দেয়। এই ঘটনায় ভারতীয় ব্যক্তিটিকে সাহায্য করেছিল তার ওই পাকিস্তানী বন্ধু। দু্’জনকেই গ্রেফতার করা হয়। পুলিশের জেরার মুখে খুনের কথা স্বীকার করে তারা। জেরায় তারা জানায়, ভারতীয় ব্যক্তিটিকে দেশে পালাতে সাহায্য করতে প্লেনের টিকিট কেটে দেয় তার পাকিস্তানী বন্ধু। ভারতীয় নাগরিক বলেছে, তার স্ত্রী বিবাহবিচ্ছেদ চেয়েছিলেন। তবে যে খোরপোষ দাবি করেছিলেন, তা সে কখনও দিতে পারতো না। আর তাই তাকে খুন করা হয়। দুবাইয়ের আদালতে দু্’জনেই দোষী সাব্যস্ত হয়।

ওই দু্’জনকেই ফায়ারিং স্কোয়াডের সামনে দাঁড়ানোর সাজা ঘোষণা করেছে আদালত। দু্’জনেই সাজা কমানোর জন্য আপিল করেছিল। তবে আদালত সেই আর্জি খারিজ করে দিয়েছে। এখন ফায়ারিং স্কোয়ার্ডে যাওয়ার বিকল্প নেই এই দু্’নাগরিকের।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...