শাশুড়িকে পেটালো এক পুত্রবধু! [ভিডিও]

আমরা এমন গর্হিত কাজের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমরা সারাজীবন দেখে এসেছি শাশুড়ি পুত্রবধুর ওপর অত্যাচার-নির্যাতন চালায়। কিন্তু এবার এক ব্যতিক্রমি ঘটনা ঘটলো। এবার শাশুড়িকে পেটালো এক পুত্রবধু! আমরা এমন গর্হিত কাজের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

mother-in-law & Daughter-in-law

শাশুড়িকে পেটোনো কথা মাঝে মধ্যেই শুনে আসছিলেন স্বামী। কিন্তু মায়ের কথা তার বিশ্বাস হচ্ছিল না। পরে স্বামীর পেতে রাখা গোপন ক্যামেরায় শাশুড়িকে পেটানোর ফুটেজ দেখে এক মহিলাকে আটক করলো ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্য পুলিশ। স্ত্রীর এহেন অত্যাচারী স্বভাবের প্রমাণ দিতে ঘরে সিসিটিভি ক্যামেরা বসিয়েছিলেন সঙ্গীতা জৈনের স্বামী সন্দীপ জৈন।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়, ৭০ বছরের বৃদ্ধা শাশুড়ি রাজ রানী জৈনকে পেটানোর ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে। পরে উত্তর প্রদেশের বিনজোর জেলা পুলিশ ব্যবস্থা নেয়। ফুটেজটি সপ্তাহ খানেক পূর্বের হলেও পুলিশ গত মঙ্গলবার সঙ্গীতা জৈনকে আটক করে।

পুলিশের একজন কর্মকর্তা সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, ‘স্বামী স্ত্রী এবং শাশুড়িরে মধ্যে রাত-দিন ঝগড়া বিবাদ মারামারি হতো ওই পরিবারে।’ সন্দীপ জৈন অভিযোগ করেছেন ৭ বছর আগে বিয়ের পর হতেই তার পরিবারের ওপর তার স্ত্রী নানাভাবে অত্যাচার শুরু করে দেয়। তবে সেই অত্যাচারের অভিযোগ করতে তিনি এতো বছর কেনো অপেক্ষা করলেন- তার কোনও সদুত্তর সন্দীপ জৈন দিতে পারেননি পুলিশকে।

অভিযুক্ত সঙ্গীতা জৈন এখন পর্যন্ত সিসিটিভি ফুটেজ সম্পর্কে কোন কথায় বলেননি। ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়া ফুটেজে দেখা যায় যে, এক মহিলা বিছানায় লেপ গায়ে দেওয়া এক বৃদ্ধাকে চড়-থাপ্পড় মারছে, তাকে টেনে হিঁচড়ে নামিয়ে দিচ্ছে সে। আবার কখনও কখনও বৃদ্ধার কণ্ঠ (গলা) চেপে ধরতেও দেখা গেছে।

হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রাজ রানী জৈন অভিযোগ করেছেন যে, ‘আমার পুত্রবধূ আমার গলা টিপে মারার চেষ্টা করে। আমার দিকে সে পাথর ছুড়ে মেরেছিল’। ফুটেজ দেখে ইন্টারনেটে বহু মানুষ ক্রদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে। পুলিশ এই ঘটনা তদন্ত করছে।

দেখুন সেই ভিডিওটি

Advertisements
Loading...