এক কোটিপতি ভিক্ষুক লাখ লাখ রুপি ঋণ দেন!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমরা কখনও এমন কথা শুনিনি যে একজন কোটিপতি ভিক্ষুক আবার লাখ লাখ রুপি ঋণ দেন! ভারতের বিহার রাজ্যের পাটনা রেলওয়ে স্টেশনে ভিক্ষা করা এই ভিক্ষুকের নাম পাপ্পু কুমার।

millionaire beggar

চেহারা দেখে অনুমান করা যায় যে বয়স ষাটের ঘরে হবে। গলায় একটি মালা। গালভরা দাড়ি। তার মাথাভর্তি চুল। বর্ণনা পড়ে মনে হতে পারে, তিনি একজন সাধারণ ভিক্ষুক। তবে চক্ষু ছানাবড়া হবে পাটনা পুলিশের বক্তব্য শুনলে।

পুলিশের ভাষ্য হলো, পাপ্পু কুমারের রয়েছে চার চারটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট। রয়েছে চারটি এটিএম কার্ড। সেগুলোতে থাকা অর্থের পরিমাণ ৫ লাখ রুপি।

পুলিশের অনুসন্ধানে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী জানা যায়, পাপ্পুর সম্পদ রয়েছে ১ কোটি ২৫ লাখ রুপি সমমূল্যের। তিনি এই পর্যন্ত ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের ১০ লাখ রুপি ঋণও দিয়েছেন।

ইন্ডিয়া টাইমস-এর খবরে বলা হয়েছে, ভিক্ষাবৃত্তি নির্মূলে পুলিশের চালানো এক অভিযানে পাপ্পু কুমারকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তখন জিজ্ঞাসাবাদে তার বিপুল সম্পদ থাকার তথ্য উঠে আসে।

জানা যায়, একসময়কার প্রকৌশলী পাপ্পু কুমার একটি সড়ক দুর্ঘটনায় পঙ্গু হয়ে যান। এরপরও তার সহায় সম্পদ ছিল বহু। তার বাবার মৃত্যুর পর বিপুল সম্পদের মালিক হয়ে যান তিনি। তাতেও মন ভরছিল না পাপ্পুর। খোঁড়া পা নিয়েই নেমে পড়েন ভিক্ষাবৃত্তিতে। জমাতে থাকেন বিপুল রুপি। এখন তিনি লাখ লাখ রুপি ঋণ দেন মানুষকে।

Advertisements
Loading...