২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় আহত নেতাকর্মীদের উন্নত চিকিৎসা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ জিল্লুর রহমান

ঢাকা টাইমস্‌ রিপোর্ট ॥ বহুল আলোচিত ২১ আগস্ট ভয়াবহ গ্রেনেড হামলার শিকার দেড় শতাধিক গুরুতর আহত আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীর জন্য উন্নত চিকিৎসা ও পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ জিল্লুর রহমান। ঘটনার প্রায় আট বছর পরও গ্রেনেড হামলায় আহতদের মধ্যে যারা শরীরে অসংখ্য স্প্লিন্টার ও ক্ষত নিয়ে দুঃসহ জীবনযাপন করছেন, তাদের প্রয়োজনে বিদেশে পাঠিয়ে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। পাশাপাশি তাদের পুনর্বাসনের জন্যও নির্দেশ দেয়া হয়। রাষ্ট্রপতির সাদর আগ্রহ, সহযোগিতা ও বিশেষ উদ্যোগের ফলে সুস্থ হওয়ার স্বপ্ন নতুন করে দেখছেন আহত নেতাকর্মীরা। খবর পত্রিকা সূত্রের।

জানা যায়, গ্রেনেড হামলায় হতাহতদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে গঠিত ‘২১ আগস্ট বাংলাদেশ’ নামে একটি সংগঠনের পক্ষ থেকে আহতদের সুচিকিৎসার্থে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য গত বছর আগস্ট মাসে রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন করা হলে তিনি দ্রুত ওই নির্দেশ দেন। পরে ওই চিঠি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের হাত ঘুরে এখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের হাতে এসে পৌঁছেছে। খুব শিগগিরই আহতদের চিকিৎসা সংক্রান্ত নির্দেশনার বাস্তবায়ন শুরু হবে। নির্ভরযোগ্য সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, প্রাথমিকভাবে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে চিকিৎসক দেখিয়ে কিংবা প্রয়োজনে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সমন্বয়ে মেডিকেল বোর্ড গঠন করে কাকে দেশে আর কাকে বিদেশে পাঠাতে হবে তা নির্ধারণ করা হবে। ২১ আগস্ট বাংলাদেশ-এর সভাপতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভিসি অধ্যাপক ডা. আআমস আরেফিন সিদ্দিক ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাজমুল হাসান নাজিমের যৌথ স্বাক্ষরে আহতদের তালিকা তৈরি ও পরিচয়পত্র প্রদান করা হচ্ছে। মোট আহতের সংখ্যা তিন শতাধিক হলেও সংগঠনের মাধ্যমে এ পর্যন্ত ১৩২ জনের তালিকা তৈরি হয়েছে বলে সংগঠন সূত্রে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউ এর জনসভায় বোমা হামলা হলে ঘটনাস্থলেই ২২ জনের মৃত্যু ঘটে। এ সময় আরও কয়েকশ নেতা-কর্মী আহত হয়। ঘটনার পর আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর নির্দেশে আহতদের কয়েকজনের দেশে-বিদেশে চিকিৎসা হলেও সবার উন্নত চিকিৎসা হয়নি। এখনও বহু নেতাকর্মী পা থেকে মাথা পর্যন্ত শরীরের বিভিন্ন স্থানে স্প্লিন্টার নিয়ে দুঃসহ জীবনযাপন করেছেন।

Advertisements
Loading...