মাথার ভেতরে বুলেট নিয়েও বেঁচে রয়েছে এক কিশোর!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এলোপাথাড়ি গোলাগুলির মাঝখানে পড়ে মাথায় গুলিবিদ্ধ হওয়া এক তুর্কী বালক পুনরায় হাঁটতে ও কথা বলতে পারছে। একটি বুলেট এখনও তার মাথার মধ্যে রয়েছে!

bullet in head

তবে বুলেটটি ওই বালকের মস্তিষ্ক হতে কিছু পুরোনো স্মৃতি মুছে ফেলার পর তার মস্তিষ্ক এবং খুলির মাঝখানে অবস্থান করছে।

সেন্ট্রাল ইউরোপীয়ান নিউজ এজেন্সি সিইএন বলেছে, গত বছর এক অজ্ঞাত পরিচয় লোক ১৪ বছর বয়সী এই তুর্কী বালক ওজান বায়ারকে গুলি করে। যে ব্যক্তি গুলি করেছিলো সে এখনও পলাতক রয়েছে। মাথায় গুলিবিদ্ধ হওয়ার পরও বায়ার বেঁচে থাকে। তবে চিকিৎসকরা বলেছেন, অপারেশন করে ভেতরে থাকা গুলিটি বের করতে গেলে বায়ার মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়তে পারে, এমন আশঙ্কায় তাকে এখন থেকে মাথার ভেতরে গুলিটি নিয়েই বেঁচে থাকতে হবে।

সিইএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বায়ার বলেছে, ‘আমি আমার স্বাস্থ্য পুণরুদ্ধারের অপেক্ষায় রয়েছি। তবে চিকিৎসকরা বলছেন, গুলিটি বের করতে গেলে আমি মৃত্যুর কোলেও ঢলে পড়তে পারি। যে কারণে আমাকে এখন থেকে এভাবেই বাঁচতে হবে।’

এ ঘটনার পর বায়ার তার অতীত জীবনের কিছু স্মৃতি ভুলে গেছে। তবে সে পুনরায় কিছু মৌলিক দক্ষতা অর্জন করছে যেটি তাকে বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ উপার্জনে কাজে আসবে।

বায়ার সিইএনকে আরও বলেছে, ‘অন্যরা আমাকে বলছে আমি আগে নাকি খুব ভালো ফুটবল খেলতাম। আমার একমাত্র স্বপ্ন ছিল একজন খ্যাতিমান ফুটবলার হওয়ার। তবে এখন আমি আর ফুটবল খেলার কথা চিন্তাও করতে পারছি না। কারণ আমি এখন হাঁটতেও পারছি না।’

পুলিশ এখনও বায়ারের ওপর হামলাকারীকে খুঁজে বের করতে পারেনি। তবে বায়ার লোকটিকে আত্মগোপন হতে বের হয়ে আসার জন্য আহবান জানিয়েছে।

সিইএনকে কিশোর বায়ার বলেছে, ‘যে লোকটি আমার এই অবস্থা করেছে, সে যদি আমার কাছে এসে ক্ষমা প্রার্থনা করে, তাহলে আমি সুখী হবো, তখন আমি তাকে ক্ষমা করে দেবো।’

Advertisements
Loading...