সিরাজগঞ্জে ভিক্ষুকের এক বস্তা টাকা নিয়ে হৈ চৈ!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর হাটে এক ভিক্ষুকের এক বস্তা টাকা নিয়ে হৈ চৈ শুরু হয়েছে। পঞ্চাশোর্ধ এক ভিক্ষুকের বস্তাভর্তি টাকা উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে।

a-sack-of-money-to-a-beggar

বিষয়টি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর থানায় ১০ জনের একটি টিম ৩ ঘণ্টা গুণে এই টাকা গুণে শেষ করেছেন। এই বস্তায় ৩৮ হাজার ৬৮০ টাকা পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, এনায়েতপুর হাটের আমতলা মোড়ের জোচনের চায়ের দোকানটির কোণায় আবর্জনা মাখা বস্তা নিয়ে মাঝে-মধ্যেই অবস্থান করতো গায়ে কম্বল জড়ানো এক বৃদ্ধা ভিক্ষুক। তার সঙ্গে থাকতো ময়লা মাখা একটি চটের বস্তা। এই বস্তা বহন করেই সে চলাফেরা করতো এনায়েতপুর হাট, স্থানীয় কেজির মোড়সহ বিভিন্ন এলাকায়।

গত রবিবার বিকেলে হঠাৎ বস্তাটি জোচনের চায়ের দোকানের কোণায় রেখে বের হলে কৌতূহলী লোকজন বস্তাটি আংশিক খোলার পর মোচড়ানো অনেক টাকা দেখতে পান। মুহূর্তের মধ্যেই লোকজন জড়ো হতে থাকে। এক পর্যায়ে খবর পেয়ে পাশে থাকা এনায়েতপুর থানার এসআই মেহেদী হাসান ছুটে এসে টাকার বস্তাটি স্থানীয়দের সঙ্গে নিয়ে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান।

থানা চত্বরে ওই টাকার বস্তাটি পরিপূর্ণভাবে খোলা হলে তারমধ্যে পাওয়া যায় শতাধিক পলিথিনে জড়ানো টাকা-পয়সা। এরপর এগুলো মাটিতে ঢালা হয়।

এ খবর মুহূর্তে এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে টাকার বস্তা দেখার জন্য থানা গেটে শত-শত লোক ভিড় জমায়। থানায় ১০ জনের একটি টিম ৩ ঘণ্টা গুণে এই টাকার হিসেব বের করেন। গুণে দেখা যায় এর মধ্যে ছিল ৩৮ হাজার ৬৮০ টাকা।

এনায়েতপুর থানার ওসি রাশেদুল ইসলাম বিশ্বাস সংবাদ মাধ্যমকে জানান, টাকা উদ্ধারের পর হতে ওই ভিক্ষুককে দেখা যাচ্ছে না। জিডি করে বর্তমানে টাকাগুলো থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। মানসিক ভারসাম্যহীন ওই বৃদ্ধা নারী অথবার তার পরিচিত কাওকে পেলে এই টাকাগুলো তুলে দেওয়া হবে বলে থানা সূত্রে জানানো হয়েছে।

Advertisements
Loading...