জুয়েলারি পোশাকের উপর দিয়ে ঘুরে বেড়াবে- এমন এক পোশাক আবিষ্কার!

একজন ডিজাইনার যেভাবে পোশাককে আধুনিক করার চেষ্টা করেন ঠিক সেইভাবে এবার বিজ্ঞানীরাও আদা-জল খেয়ে লেগেছেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এবার এমন এক পোশাক আবিষ্কার করা হয়েছে যার উপর দিয়ে ঘুরে বেড়াবে জুয়েলারি! গত বছর এমআইটি ও স্ট্যানফোর্ডের বিজ্ঞানীরা একটি নতুন ধরনের রোবট তৈরি করেছিলেন, যেটি আপনার পোশাকের ওপর ম্যাগনেট ব্যবহার করে স্ক্রল করতে পারে। এবার সেই প্রযুক্তি ব্যবহার করে আধুনিক ফ্যাশনের পোষাক চলে আসছে খুব শীঘ্রই!

পোশাক নিয়ে বিজ্ঞানীদের যেনো গবেষণার শেষ নেই। একজন ডিজাইনার যেভাবে পোশাককে আধুনিক করার চেষ্টা করেন ঠিক সেইভাবে এবার বিজ্ঞানীরাও আদা-জল খেয়ে লেগেছেন। গত বছর এমআইটি ও স্ট্যানফোর্ডের বিজ্ঞানীরা একটি নতুন ধরনের রোবট তৈরি করেছিলেন, যেটি আপনার পোশাকের ওপর ম্যাগনেট ব্যবহার করে স্ক্রল করতে পারে। এবার সেই প্রযুক্তি ব্যবহার করে আধুনিক ফ্যাশনের পোষাক চলে আসছে খুব শীঘ্রই। যে পোশাক উপর দিয়ে ঘুরে বেড়াবে জুয়েলারি!

জানা গেছে, ক্ষুদ্র রোবটগুলো পোশাকে বর্তমানে জীবন্ত জুয়েলারি হিসেবেই কাজ করবে। এটি এমন জুয়েলারি যা পোশাকের ওপর চলাফেরাও করতে পারবে। পোশাকের প্যাটার্ন পরিবর্তন করতে পারবে ও স্টিচিংও করতে পারবে। নতুন এই প্রকল্পটির নাম হলো ‘কিনো’।

আবিষ্কৃত এই রোবটগুলো কেবল নান্দনিক উদ্দেশ্যেই কাজ করে না, এতে সেন্সরও রয়েছে, যা পরিবেশগত অবস্থা বুঝে স্ক্রয়ংক্রিয়ভাবে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে সক্ষম। গবেষকরা একটি রেইনকোটের সঙ্গে রোবটগুলো যুক্ত করার পর দেখেছেন, তাপমাত্রা বৃদ্ধির বিষয়টি রোবটগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে উপলব্ধি করতে পেরে রেইনকোটের হুড খুলে দিতে সক্ষম হয়েছে।

‘কিনো’ প্রকল্পটির নির্মাতাদের ধারণা, অদূর ভবিষ্যতে পোশাকে থাকা এই রোবট মোবাইলের মাইক্রোফোন ও স্পিকার হিসেবেও ব্যবহার করা যাবে। যে কারণে পরিধানযোগ্য রোবটগুলো ব্যক্তিগত সহকারী হিসেবে কাজ করবে।

এ বিষয়ে প্রকল্পটির অন্যতম সদস্য সিনডি হিন-লিউ কাও বলেছেন, ‘আমরা মনে করি ভবিষ্যতে এগুলোর নিজস্ব মস্তিষ্কও থাকবে, তারা আপনার অভ্যাসগুলো শিখবে, আপনার পেশাদার শৈলী শিখবে, সেইসঙ্গে নান্দনিকতার ও ব্যক্তিগত সহকারীর সেবাও দেবে।’

Advertisements
Loading...