বন্ধ হয়ে গেলো কুড়িগ্রাম জেলার একমাত্র সিনেমা হলটি

শহরের কলেজ রোডে চালু ছিল একমাত্র সিনেমা হল 'মিতালি সিনেমা'

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এমন এক সময় ছিলো যখন সিনেমা হলে গিয়ে সকলেই সিনেমা দেখতেন। কিন্তু আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি মানুষকে ঘরকুনো করে ফেলেছে। এখন ঘরে বসেই অনলাইনে দেখছেন সিনেমা। আর তাই দেশের বহু প্রেক্ষাগৃহ ক্রমেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। কুড়িগ্রাম জেলার একমাত্র সিনেমা হলটিও এবার বন্ধ হয়ে গেলো।

জানা গেছে, কুড়িগ্রামে ৪টি সিনেমা হল ছিল। তারমধ্যে ঝিনুক, চিত্রা এবং পূর্বাশা নামের ৩টি সিনেমা হল আগেই বন্ধ হয়ে গেছে। শহরের কলেজ রোডে চালু ছিল একমাত্র সিনেমা হল ‘মিতালি সিনেমা।’

জেলার এই একমাত্র এবং সর্বশেষ সিনেমা হলটিও ১২ অক্টোবর বন্ধ হয়ে গেছে। সিনেমা হলের জায়গায় নির্মিত হতে চলেছে বিশাল শপিং কমপ্লেক্স।

ক্রমাগত আর্থিক ক্ষতিরমুখেই সিনেমা হলটি বন্ধ করে দিতে বাধ্য হলো কর্তৃপক্ষ। যে কারণে একটি জেলা শহরে আর কোনো সিনেমা হল থাকলো না। শেষ সিনেমা হিসেবে হলটিতে গত সপ্তাহে চলেছে শাকিব খান এবং শবনম বুবলী অভিনীত ‘অহংকার ‘ চলচ্চিত্রটি।

এ বিষয়ে মিতালি সিনেমা হলের মালিক মোয়াজ্জেম হোসেন বলেছেন, ‘এভাবে তো আর সিনেমা হল চালানো যায় না। ক্রমাগত আর্থিক ক্ষতিতে হল ব্যবসা ধরে রাখা যায় না। তাই বাধ্য হয়েই সিনেমা হলটি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিলাম।’

তিনি জানিয়েছেন, সিনেমা হল বন্ধ করে সেখানে শপিং কমপ্লেক্স নির্মাণ করা হবে। তবে সেখানে সিনেপ্লেক্স রাখার কোনো পরিকল্পনা রয়েছে কি না এমন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেছেন, আসলে চলচ্চিত্র ব্যবসা এখন আর নেই। তাই ক্ষতি করে কোনো ব্যবসা চালানো সত্যিই কঠিন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...