৬ বছর বয়সী শিশুর আয় কোটি ডলার!

নাম রায়ান। বয়স মাত্র ৬ বছর। এই বয়সেই রীতিমতো তারকা বনে গেছে এই শিশু

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এমন কথা শুনলে হয়তো আপনিও বিস্মিত হবেন। মাত্র ৬ বছর বয়সী শিশুর আয় কোটি ডলার! এই বয়সেই রীতিমতো তারকা বনে গেছে এই পুঁচকে শিশুটি!

নাম রায়ান। বয়স মাত্র ৬ বছর। এই বয়সেই রীতিমতো তারকা বনে গেছে এই শিশু। কিভাবে হলো শুনলে আপনিও আশ্চর্য হবেন। কেবলমাত্র খেলনার পর্যালোচনা বিষয়ক ভিডিও ইউটিউবে পোস্ট করে কোটিপতি হয়েছে এই ৬ বছর বয়সী শিশু। এক বছরের মধ্যে সে আয় করেছে ১ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলার।

অনেকেই আয় করছেন ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট ইউটিউবে চ্যানেল খুলে ভিডিও পোস্ট করে। বিশ্বের নানা দেশেই এখন ইউটিউব তারকাদের দেখা মেলে। তবে এই শিশু রায়ানও ইউটিউবের শীর্ষ শিশুস্থানীয় তারকাদের একজন। ঘণ্টার পর ঘণ্টা ভিডিও দেখে সময় কাটে বিশ্বের নানা দেশের শিশুদের।

যুক্তরাষ্ট্রে রায়ানের বসবাস। তবে তার নামের শেষাংশ ও ঠিকানা গোপন রেখেছেন তার মা-বাবা। শুধু তাই নয় নিজেদের পরিচয়ও প্রকাশে অনিচ্ছুক তারা। ইউটিউবে রায়ানের একটি চ্যানেলও রয়েছে। চ্যানেলটির নাম, ‘রায়ান টয়েসরিভিউ’। তার বয়স যখন মাত্র ৩ বছর, তখন থেকেই বাবা-মা তার ভিডিও ওই চ্যানেলে পোস্ট করতে শুরু করেন। এসব ভিডিওর মধ্যে রয়েছে রায়ানের খেলার দৃশ্য, খেলনার নানা দিক নিয়ে পর্যালোচনা ইত্যাদি।

সংবাদ মাধ্যম ফোর্বস সাময়িকীর তথ্যমতে, ইউটিউবে আয় করা উদ্যোক্তাদের শীর্ষ তালিকায় স্থান পেয়েছে কোটিপতি রায়ানের নাম। গত বছরের জুন মাস হতে চলতি বছরের জুন পর্যন্ত ১ কোটি ১০ লাখ ডলার আয় করে এই তালিকায় রায়ান ৮ নম্বরে উঠে এসেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলেসভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম টিউবফিল্টারকে রায়ানের মা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছে, তার সন্তান খেলনাবিষয়ক বহু ইউটিউব চ্যানেল দেখতো। ‘ইভানটিউবএইচডি’ এবং ‘হুলিয়ান মায়া’ নামে দুটি চ্যানেল ছিল তার প্রিয়। একদিন সে তার মা-বাবাকে বললো, ‘অন্য বাচ্চাদের ভিডিও ইউটিউবে রয়েঝছে, তাহলে আমার কেনো নেই?’ রায়ানের এই বায়নার পরই তার বাবা-মা সিদ্ধান্ত নেন, সন্তানের খেলার দৃশ্যের ভিডিও ধারণ করে ইউটিউবে পোস্ট করবেন। তিনি জানান, ২০১৫ সালের মার্চ মাস হতে যাত্রা শুরু হয় ‘রায়ান টয়েসরিভিউ’র। তারপর আর তাকে থেমে থাকতে হয়নি। এখন সে সবথেকে কম বয়সী আয়করা এক শিশু।

Advertisements
Loading...