The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

আস্ত একটি ব্রিজের ৭৫ শতাংশ চুরি হয়ে গেছে!

এমনই একটি আশ্চর্যজন ঘটনা ঘটেছে রাশিয়ার মুরমানস্ক প্রদেশে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমাদের দেশে যে চুরির কোনো সীমা নেই তাকে বলা হয় পুকুর চুরি। কিন্তু অন্য দেশেও এমন চুরির ঘটনা ঘটতে পারে তা সত্যিই অবিশ্বাস্য। এমনই একটি ঘটনা হলো আস্ত একটি ব্রিজের ৭৫ শতাংশ চুরির ঘটনা!

আস্ত একটি ব্রিজের ৭৫ শতাংশ চুরি হয়ে গেছে! 1

আমাদের দেশে যে চুরির কোনো সীমা নেই তাকে বলা হয় পুকুর চুরি। কিন্তু অন্য দেশেও এমন চুরির ঘটনা ঘটতে পারে তা সত্যিই অবিশ্বাস্য। এমনই একটি ঘটনা হলো আস্ত একটি ব্রিজের ৭৫ শতাংশ চুরির ঘটনা! সত্যিই এমন একটি ঘটনা দেখার পর সকলেই বিস্মিত হয়েছে। এও কী সম্ভব?

টাকা-পয়সা, সোনা-গয়না কিংবা দামি গাড়ি চুরি হওয়ার কথা আমরা এতোদিন শুনেছি। কিন্তু কোনোদিন আমরা শুনিনি আস্ত একটি ব্রিজ চুরি করা হয়েছে? এমনই একটি আশ্চর্যজন ঘটনা ঘটেছে রাশিয়ার মুরমানস্ক প্রদেশে। সম্প্রতি সেখানকার উমবা নদীতে একটি ব্রিজের ৭৫ ফুট পাটাতনের অংশ বেমালুম গায়েব হয়ে গেছে। স্থানীয়দের অভিযোগ হলো, ব্রিজটি চুরি হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে থানায় অভিযোগও করেছেন তারা।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বেশ কয়েক বছর পূর্বে আইকুভেন এবং লোভোরেজো গ্রামের সংযোগকারী ওই ব্রিজটিকে পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। এর প্রায় ৫৬ টন (৫৬ হাজার কেজি) ওজনের মাঝখানের অংশটি বেমালুম গায়েব হয়ে যাওয়ার খবর প্রথম প্রচার হয় গত মে মাসে।

এদিকে সোশ্যাল মিডিয়া সাইট ভিকের মাধ্যমে ব্রিজ গায়েব হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে তদন্ত শুরু করে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

রাশিয়ান সোশ্যাল নেটওয়ার্ক ‘ভিকোন্টাকটে’ ১৬ মে প্রকাশিত একটি ছবিতে দেখা যায় যে, সেতুর মাঝখানের পিলার পানিতে পড়ে যাওয়ার ১০ দিনের মধ্যেই সেতুটির স্প্যানটি সেখানে আর নেই।

ছবি প্রকাশকারীদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে, পানিতে কোনও রকম ধ্বংসাবশেষই পাওয়া যায়নি। তাদের ধারণা মতে, কোনও প্রাকৃতিক বিপর্যয় এই কাণ্ড ঘটাতে পারবে না। অজ্ঞাত ব্যক্তিরাই ব্রিজের ভাঙা অংশ হয়তো নিয়ে গেছে।

এলাকাবাসীদের ধারনা যে চুরি হয়ে গেছে সেতুটির স্প্যান। বহুদিন ধরেই এই এলাকায় চুরিসহ নানা ধরনের ঘটনা ঘটছে। তবে বিশাল ওজনের এই ধাতব সেতু চুরি হতে পারে তা কেও কখনও ভাবেননি। সেতু চুরির ঘটনা জানাজানি হতেই পুলিশে অভিযোগ জানানো হয়েছে। পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

Loading...