The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বুকের দুধ বিক্রি করেই লাখ টাকা আয়!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ দুই সন্তানের জননী। বয়স বেশি নয় মাত্র ২৪ বছর। তিনি লাখপতি হয়েছেন বুকের দুধ বিক্রি করে। তবে এটি তার ব্যবসা।

বুকের দুধ বিক্রি করেই লাখ টাকা আয়! 1

নিজের বুকের দুধ বিক্রি করেন এক নারী । সাইপ্রাসে বসবাসকারী এই নারীর নাম রাফেলিয়া ল্যামপ্রোউ। যখন তার ছেলে আঞ্জেলিওর জন্ম হয়, তখন তিনি দেখেন ছেলেকে দুধ খাওয়ানোর পরেও তার অনেকটা দুধ বেঁচে থাকছে। তখনই নিজের বুকের দুধ দান করার কথা মাথায় আসে রাফেলিয়ার।

তিনি প্রথমে কিছু বাচ্চাদের, যারা মাতৃদুগ্ধ হতে বঞ্চিত তাদের মধ্যে নিজের বুকের দুধ বিক্রি করেন। তারপর এই কাজটি শেষ পর্যন্ত ব্যবসায় রূপান্তরিত হয়।

রাফেলিয়া জানিয়েছেন, প্রতিদিন ২ লিটারেরও বেশি দুধ তৈরি হতো তার। এতো দুধ নিয়ে কী করবেন তিনি তা ভেবে পাচ্ছিলেন না।

শেষ পর্যন্ত এক দম্পতিকে তিনি সাহায্য করতে এগিয়ে এলেন। সদ্যোজাতের জন্য ওই মায়ের কাছে মাতৃদুগ্ধের যোগান ছিল খুবই কম। এই সময়ই বেশকিছু বডি বিল্ডার তার কাছে বুকের দুধ কেনার ইচ্ছাও প্রকাশ করেন।

মানব শরীরে গ্রোথের জন্য যেহেতু এই দুধ খুবই উপকারি, যে কারণেই বডি বিল্ডারদের কাছে দিনে দিনে মাতৃদুগ্ধের চাহিদা যেনো ক্রমেই বাড়তে থাকে। তারপর থেকেই রাফেলিয়া বাণিজ্যিকভাবে বুকের দুধ বিক্রি শুরু করেন। ধীরে ধীরে এটাই তার এক পেশায় পরিণত হয়। প্রতি আউন্স দুধের জন্য ১ ইউরো করে নিতে শুরু করেন তিনি।

রাফেলিয়ার স্বামী অ্যালেক্সও তার এই কাজে কখনও বাঁধা দেননি বরং বরাবর তিনি সাপোর্টই করে আসছেন। এখন নিজের একটি ফেসবুক পেজ এবং ওয়েবসাইট চালান রাফালিয়া। সেখানে পরিষ্কার ভাষায় লেখা রয়েছে যে, তিনি মদ খাননা, এমন কি ধূমপানও করেননা ।

অনলাইনেই নতুন মা কিংবা বডি বিল্ডাররা মাতৃদুগ্ধের জন্য তার কাছে তখন আবেদন করেন। সেই দুধ তিনি সরবরাহ করেন। আর এই দুধ বিক্রি তিনি হয়েছেন লাখ পতি!

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...