The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

গাজায় পেপসি কারখানা ইসরায়েলের নিষেধাজ্ঞায় বন্ধ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমদানিতে ইসরায়েলের বিধিনিষেধের কারণে বোতলজাত কোমল পানীয় কোম্পানী পেপসি এ সপ্তাহে তাদের গাজার কারখানা বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির স্বত্তাধিকারীরা।

গাজায় পেপসি কারখানা ইসরায়েলের নিষেধাজ্ঞায় বন্ধ 1

ডয়চে ভেলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ইসরায়েল এবং মিশরের কঠোর নজরদারি এবং নিয়ন্ত্রণে রয়েছে গাজা সীমান্ত। দেশ দুটি মনে করে যে, সীমান্ত দিয়ে হামাসের কাছে যাতে অস্ত্র কিংবা অস্ত্র তৈরির রসদ যেতে না পারে- সেটি নিশ্চিত করতে এমন নিয়ন্ত্রণ আরোপ অত্যান্ত জরুরি।

সম্প্রতি হামাসের সঙ্গে ১১ দিনের যুদ্ধ চলাকালীন সময় সীমান্ত দিয়ে গাজায় পণ্য প্রবেশ বন্ধ করে দেয় ইসরায়েল। এদিকে গত সোমবার নিষেধাজ্ঞা শিথিল করে কিছু পণ্য রপ্তানি শুরু করলেও কার্বন ডাই-অক্সাইড ও বোতলজাত পণ্যের কারখানার জন্য অপরিহার্য সিরাপ এখনেও পাচ্ছে না গাজা।

কার্বন ডাই অক্সাইড এবং বিশেষ ধরনের সিরাপের মজুদ শেষ হয়ে যাওয়ায় গাজার পেপসি কারখানা পড়েছে এক মহাসংকটে। সেভেনআপ ও মিরিন্ডার মতো কোমল পাণীয় বোতলজাত করা হয়ে তাকে এই কারখানায়। সোমবার হতে কারখানাটি পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে।

গাজায় পেপসি বন্ধ হয়ে যাওয়ার কারণ জানাতে গিয়ে প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার হামাম আল-ইয়াজেজি বলেছেন, ‘‘আমাদের কাঁচামাল শেষ হয়ে গেছে। তাই দুর্ভাগ্যজনকভাবে কারখানাটি বন্ধ করে দিতে হলো। যে কারণে কারখানার ২৫০ জন কর্মী বাড়ি ফিরে যেতে বাধ্য হয়েছেন।’’

উল্লেখ্য, ১৯৬১ সালে প্রতিষ্ঠিত পেপসি গাজা এইবার প্রথম বন্ধ হলো। বন্ধ হওয়ার মাত্র একদিন আগে সাড়ম্বরে প্রতিষ্ঠার ৬০ বছর পূর্তি উদযাপনের পরিকল্পনা করেন হামাম আল-ইয়াজেজি। তবে এখন শূন্য থেকে এক কোটি ৫০ লাখ ডলার মূল্যের প্রতিষ্ঠান হয়ে ওঠা পেপসি গাজার কর্মীদের কথা ভেবে কান্নাভেজা কণ্ঠে তিনি আরও বলেন, ‘‘৬০ বছর পূর্তি উদযাপনের বছরটা তো একেবারে অন্যরকম হওয়ার কথা ছিলো, অথচ উদযাপনের সুযোগ থেকেও আমরা বঞ্চিত হয়েছি।’’

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...