The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

খাবার খুঁজতে দেওয়াল ভেঙে রান্নাঘরে হাতি! [ভিডিও]

মধ্যরাতে দরজায় কড়া নাড়া সম্মানের মনে করেনি ওই হাতিটি। তাই রাখ ডাক না করে একেবারে দেওয়াল ফুড়েই ঢুকে গেছেন রান্নাঘরে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ খাদ্য খুঁজতে গিয়ে এক বন্য হাতি শেষ পর্যন্ত ঢুকে পড়েছে এক মহিলার রান্না ঘরে! এই দৃশ্য দেখে ওই মহিলার তো অবস্থা খারাপ। তিনি রান্নাঘরে হাতি দেখে অজ্ঞান হয়ে পড়লেন!

খাবার খুঁজতে দেওয়াল ভেঙে রান্নাঘরে হাতি! [ভিডিও] 1

যদি আপনার জীবনে কখনও এমন একটি ঘটনা ঘটতো তাহলে আপনি কী করতেন? অর্থাৎ আপনি রান্নাঘরে রান্না বসিয়েছেন, এমন সময় হঠাৎ আপনার রান্নাঘরে হুড়মুড়িয়ে ঢুকে পড়লো একটা বিশাল হাতি! ভাবলেই আ্পনি হয়তো শিউরে উঠবেন। তবে বাস্তবেও ঘটেছে এমন একটি ঘটনা এক মহিলার সঙ্গে। রাত ২ টার সময় রান্না ঘরে থালা বাসনের আওয়াজ শুনে ছুটে যান এক মহিলা। সেখানে গিয়ে যে দৃশ্য দেখলেন তা দেখে রীতিমতো ভিরমি খাওয়ার অবস্থা ওই মহিলার!

তিনি দেখলেন রান্নাঘরের দেওয়াল ভেঙে ঢুকে পড়েছে একটি বিশাল হাতি। খাবারের সন্ধানে শুড় দিয়ে চলছে তার সন্ধান। তারপর ড্রয়ার খুলে নিজেই বের করে মুখে চালান করে দিলো এক চালের প্যাকেট। সেই ভিডিওটি সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই ভাইরাল হয়েছে।

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম গার্ডিয়ান জানিয়েছে যে, এমন একটি ঘটনা ঘটেছে থাইল্যান্ডে। দেওয়াল ভেঙে হাতি ‘চোরের’ মতোই ঢুকে পড়েছে রান্নাঘরে। জানা গিয়েছে যে, থাইল্যান্ডের বুনচুয় গ্রামের কাছাকাছি এক জাতীয় উদ্যানে হাতিটিকে দেখা গেছে। মাঝে মধ্যেই গ্রাম পরিদর্শনেও বেরোন এই গজরাজ। স্থানীয় বাজারেও যান মাঝে মধ্যেই।

তবে মধ্যরাতে দরজায় কড়া নাড়া সম্মানের মনে করেনি ওই হাতিটি। তাই রাখ ডাক না করে একেবারে দেওয়াল ফুড়েই ঢুকে গেছেন রান্নাঘরে। এই ঘটনায় মাথায় হাত ওই বাড়ির মালিকের। জানা গেছে, এই দেওয়াল সারাতে বাংলাদেশী মুদ্রায় তার খরচ হবে প্রায় সোয়া লক্ষ টাকা।

দেখুন ভিডিওটি

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...