ব্রিটিশ পার্লামেন্টে বাংলাদেশী তিন কন্যা!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনে লেবার পার্টি হতে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত তিন কন্যা।

British Parliament Bangladeshi three daughters

ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনে লেবার পার্টি হতে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত তিন কন্যা। নির্বাচিতরা হলেন- রূপা আশা হক, টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিকী এবং রুশনারা আলী। এদের মধ্যে টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিকী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনী।

অপরদিকে দ্বিতীয়বারের মতো লেবার পার্টি হতে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন রুশনারা আলী। ৩২ হাজার ৩৮৭ ভোট পেয়ে জয় পান তিনি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ পার্টির ম্যাথিউ স্মিথ পেয়েছেন মাত্র ৮ হাজার ৭০ ভোট। বাঙালি অধ্যুষিত টাওয়ার হ্যামলেটস এলাকা হতে নির্বাচন করেন তিনি।

এর পূর্বে ২০১০ সালে বেথনাল গ্রিন অ্যান্ড বো আসন হতে এমপি নির্বাচিত হন রাশনারা আলী। তবে কোয়ালিশন সরকার ইরাকের আইএস জঙ্গিদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে যাওয়ায় তিনি প্রতিবাদস্বরূপ ২০১৪ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর সংসদ হতে পদত্যাগ করেন। যদিও ২০১৫ সালের সাধারণ নির্বাচনের জন্য বেথনাল গ্রিন অ্যান্ড বো আসনের জন্য তাকেই মনোনয়ন দেয় লেবার পার্টি।

জানা যায়, ১৯৭৫ মালের ১৪ মার্চ বাংলাদেশের সিলেট জেলায় জন্মগ্রহণ করেন রুশনারা আলী। মাত্র ৭ বছর বয়সে পরিবারের সঙ্গে লন্ডনে অভিবাসিত হন। আর তখন থেকে তিনি সেখানেই বসবাস করছেন।

অপরদিকে মাত্র ২৭৪ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন বাংলাদেশী আরেক বংশোদ্ভূত রূপা আশা হক। ৪৩ বছর বয়সী রূপা আশা হক ব্রিটিশ পার্লামেন্টে লন্ডনের ইলিং সেন্ট্রাল অ্যান্ড অ্যাকটন আসন হতে এমপি পদে নির্বাচিত হলেন। লেবার পার্টির প্রার্থী রূপা পেয়েছেন ২২ হাজার দুই ভোট। অপরদিকে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির প্রার্থী এনজি ব্রে পেয়েছেন ২১ হাজার ৭২৮ ভোট।

কিংস্টন ইউনিভার্সিটির সমাজবিজ্ঞান বিভাগের জ্যেষ্ঠ প্রভাষক রূপা আশা হক ইংরেজি লেখক ও কলামিস্ট হিসেবেও ব্যাপক পরিচিত। তিনি ইলিংয়ের লন্ডন বরোর ডেপুটি মেয়র পদে দায়িত্ব পালন করেন। রূপা আশা হকের আদি বাড়ি বাংলাদেশের পাবনায়।

British Parliament Bangladeshi three daughters-2মা রেহানার সঙ্গে টিউলিপ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনি এবং শেখ রেহানার মেয়ে টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক লেবার পার্টি হতে লন্ডনের হ্যামস্টেড অ্যান্ড কিলবার্ন আসনে ১ হাজার ১৩৮ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন। ৩২ বছর বয়সী টিউলিপ ভোট পেয়েছেন ২৩ হাজার ৯৭৭টি (৪৪ শতাংশ)। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি কনজারভেটিভ দলের প্রার্থী সাইমন মার্কাস পেয়েছেন ২২ হাজার ৮৩৯টি (৪২ শতাংশ) ভোট।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বোন শেখ রেহানার মেয়ে টিউলিপ সিদ্দিক মাত্র ১৬ বছর বয়সে লেবার পার্টিতে যোগ দিয়েছিলেন। তিনি রিজেন্ট পার্কের সাবেক কাউন্সিলরও। ২০১০ সালে ক্যামডেন কাউন্সিলের প্রথম বাঙালি নারী কাউন্সিলর হিসেবে তিনি দায়িত্ব পালন করেন। ২০১১ সালে তিনি এই এলাকার কিংস কলেজ লন্ডন হতে এমএ ডিগ্রি অর্জন করেন।

Advertisements
Loading...