৫ হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে এক পেঙ্গুইন এলো মানব-বন্ধুর নিকটে! [ভিডিও]

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শুধু মানুষই নয়, জীব-জন্তুুও বন্ধুদের মর্যাদা রক্ষা করতে পারে। বন্ধুর প্রতি কৃতজ্ঞতা স্বরূপ ৫ হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে এক পেঙ্গুইন এলো মানব-বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে!

penguins to man-friend

সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত এমন এক খবর সত্যিই মানবজাতিকে নাড়া দেবে তাতে কোনো সন্দেহ নেই। অনলাইন মাধ্যমগুলো এই খবর এখন ভাইরাল হয়ে দেখা দিয়েছে। কারণ সৃষ্টির সেরা জীব মানুষও অনেক সময় বন্ধুর কদর বুঝতে পারে না। তবে পেঙ্গুইন এবার দেখিয়ে দিলেন সেইটি।

শুধু একদিন নয়, দিমদিম নামের এক পেঙ্গুইন প্রতিবছর ৫ হাজার মাইল পথ অতিক্রম করে আসে এক মাবর বন্ধুর সঙ্গে দেখা করার জন্য। এই ব্যক্তি কোনো একসময় ওই পেঙ্গুইনের জীবন রক্ষা করেছিলেন। তাই প্রতিবছর কৃতজ্ঞতা স্বরূপ অন্তত একবার তার সঙ্গে দেখা করতে আসেন দিমদিম!

জানা যায়, দক্ষিণ আমেরিকান ম্যাজেলানীয় পেঙ্গুইনটি অবসরপ্রাপ্ত রাজমিস্ত্রি ও খণ্ডকালীন এক জেলে জোয়াও পেরেইরা ডি সুজার সঙ্গে দেখা করার জন্য আসেন। ওই অবসরপ্রাপ্ত রাজমিস্ত্রি ব্রাজিলের রিও দে জেনেইরো এর বাইরে একটা দ্বীপে বসবাস করেন। কয়েক বছর পূর্বে তিনি এই পেঙ্গুইনের সারা শরীরে তেল দেখতে পান। তখন তিনি মৃত্যুর মুখ হতে এই পেঙ্গুইনকে রক্ষা করেন।
ডি সুজা পেঙ্গুইনের শরীরের তেল মুছে দেন ও তাকে মাছ খেতে দেন বাঁচার জন্য। সেসময় তিনি এই পেঙ্গুইনের নাম দেন দিমদিম। যখন তিনি এই পেঙ্গুইনকে আবার তার স্থানে রেখে আসতে গিয়েছিলেন, তখন দিমদিম তাকে ছেড়ে যেতেই চায়নি। তারপর দিমদিম তার সঙ্গে ১১ মাস অবস্থানও করেন। তবে দিমদিমের শরীরে নতুন পালক জন্মানোর পর হঠাৎ করেই সে কোথায় যেনো হারিয়ে যায়।

তবে তার কয়েক মাস পর দিমদিম আবার সেই জেলের নিকট দেখা করতে আসে। সমুদ্র সৈকত হতে তাকে অনুসরণ করে বাসা পর্যন্ত চলে আসে। প্রতিবছর অন্তত ৮ মাস দিমদিম ডি সুজার সঙ্গে থাকে। বাকি ৪ মাস দিমদিম আর্জেন্টিনা এবং চিলিতে বসবাস করে। আর সে সময় অন্তত ৫ হাজার পথ অতিক্রম করে তার মানব বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে আসে! সত্যিই এমনটি কখনও ভাবাই যায় না!

দেখুন ভিডিওটি

Advertisements
Loading...