পাকিস্তানের ১৭০টি ট্যাংক ভারত উড়িয়ে দিলেও ১৯৬৫ সালে যুদ্ধে হেরে যায়!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ১৯৬৫ সালের কথা। তখন ভারত পাকিস্তানের যুদ্ধ শুরু হয়। সে যুদ্ধে পাকিস্তানের কাছে হারে ভারত।

india-pakistans-1965-war

তবে সেদিন হেরে গেলেও যুদ্ধক্ষেত্রে ভারতের সামরিক শক্তির নৈপুণ্য সম্পর্কে ধারণা তৈরি হয় পাকিস্তানের। যুদ্ধ পরিস্থিতি তখন চরমে। অমৃতসর দখল করার নির্দেশ দিয়েছিলেন পাক জেনারেল আইয়ুব খান। পাকিস্তানের বিশেষ বাহিনীকে সেই দায়িত্ব দেওয়া হয়। ভারতকে হারানোর জন্য উঠেপড়ে লেগেছিল পাকিস্তান।

ওই যুদ্ধে একসঙ্গে ২২০টি ট্যাংক পাঠায় ওই এলাকায়। সামনে যা পড়বে তা সব ধ্বংস করে দেওয়াই ছিল উদ্দেশ্য। পাকিস্তানর এই আক্রমণ প্রতিহত করে দেওয়ার নেতৃত্বে ছিলেন লেফট্যানেন্ট জেনারেল হরবক্স সিং। তবে সংখ্যায় কম হলেও হাল ছাড়তে নারাজ ছিলেন হরবক্স সিং। নতুন কায়দায় ফাঁদে ফেলার জন্য প্রস্তুত করলেন নিজ সেনাবাহিনীকে। ‘ইউ’ আকারে সাজিয়ে তিনদিক হতে ট্যাংকগুলোকে উড়িয়ে দেওয়ার জন্য প্রস্তুত করলেন।

ভারত সেনাদের সরিয়ে নিয়েছে এইকথা ভেবে ওই এলাকায় ঢুকে পড়লো পাকিস্তানি ট্যাংক। এলাকার আখের খেতে আগেই পানি জমিয়ে রাখে ভারতীয় সেনাবাহিনী। যাতে করে কাদায় ডুবে যায় ওই ট্যাংকগুলো। লম্বা আখ গাছের আড়ালে লুকিয়ে ছিল ভারতীয় সেনা বাহিনী। দেখা না গেলেও খুব নিকটেই ছিল তারা। পরপর উড়িয়ে দিয়েছিল ১৭০টি ট্যাংক। সেদিন কাতারে কাতারে শুধুই পড়েছিল পাকিস্তানি ট্যাংকের ধ্বংসাবশেষগুলো। তাই ওই এলাকার নামই দেওয়া হয়েছিল প্যাটন নগর। লেফট্যানেন্ট জেনারেল হরবক্স সিংয়ের এই মারাত্মক ধরনের পরিকল্পনার কথা এখনও উঠে আসে বিশ্বের সামরিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে।

বর্তমানে ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানি যুদ্ধ অবস্থা বিরাজ করছে। আর সে সময় উঠে আসছে ভারত-পাকিস্তানের যুদ্ধের নানা কাহিনী। তবে আধুনিক এই যুগে মানুষ কোনো অবস্থাতেই যুদ্ধের কথা ভাবতেও পারে না। কারণ তখনকার যুদ্ধ আর এখনকার যুদ্ধ এক নয়। এখন যুদ্ধ মানেই ধ্বংস। এমন ধ্বংস কী কেও কামনা করতে পারে?

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...