অ্যাপেন্ডিসাইটিস সম্পর্কে জেনে নিন

অ্যাপেন্ডিক্সের প্রদাহকেই বলা হয় অ্যাপেন্ডিসাইটিস

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ অ্যাপেন্ডিসাইটিসের সমস্যায় অনেক ব্যক্তিই আক্রান্ত হয়ে থাকে। রোগটি সম্পর্কে সঠিক ধারণা না থাকলে এর সঠিক চিকিৎসা করা আপনার জন্য কঠিন হয়ে যেতে পারে। অ্যাপেন্ডিসাইটিস সম্পর্কে আপনাকে অবগত করতে কিছু তথ্য দেওয়া হল।

অ্যাপেন্ডিসাইটিস কি?

আমাদের শরীরের বৃহদান্ত্রের সাথে যে সাড়ে ৩ ইঞ্চি লম্বা টিস্যুর টিউব থাকে সেটিকে অ্যাপেন্ডিক্স বলে। এই অ্যাপেন্ডিক্সের প্রদাহকেই বলা হয় অ্যাপেন্ডিসাইটিস। এই রোগ দেখা দিলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে যতো দ্রুত সম্ভব অ্যাপেন্ডিক্স সার্জারির মাধ্যমে বাদ দেওয়া প্রয়োজন। সময় মতো ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে অ্যাপেন্ডিক্সটি ফেটে যেতে পারে, এবং এই কারণে পেরিটোনাইটস নামক আরেকটি গুরুতর রোগ হতে পারে।

কারণ

মল, বাহ্যিক কোনো বস্তু, ইনফেকশন বা ক্যান্সারের কারণে অ্যাপেন্ডিক্সে আবদ্ধতা হলে অ্যাপেন্ডিসাইটিস হয়ে থাকে।

 লক্ষণ

  • নাভির কাছে বা পেটের উপরের দিকে ব্যথা
  • ক্ষুধামন্দা
  • বমি বমি ভাব
  • পেট ফুলে যাওয়া
  • জ্বর হওয়া (৯৯-১০২ ডিগ্রি ফারেনহাইট)

 প্রতিরোধ ও চিকিৎসা

অ্যাপেন্ডিসাইটিস রোধ করার কার্যকর কোনো উপায় নেই। তবে ফলমূল ও শাকসবজির মতো উচ্চ মাত্রার আঁশযুক্ত খাবার খেলে অ্যাপেন্ডিসাইটিসের ঝুঁকি কমে যায়। অ্যাপেন্ডিসাইটিসের লক্ষণ দেখা দিলে চিকিৎসকের কাছে গিয়ে নিশ্চিত হয়ে অ্যাপেন্ডিক্স অপসারণ করা প্রয়োজন।

Loading...