পরমাণু ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের কড়া সমালোচনা করলেন রুহানি

সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশন (এসজিও) এর শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নিতে চীন সফরে এসেছেন রুহানি

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পরমাণু ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের একচ্ছত্র মনোভাবের কড়া সমালোচনা করলেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। সেইসঙ্গে ইরানের ইউরোপীয় দেশগুলোর চুক্তি নবায়ন করায় সহযোগিতা করার জন্য চীন ও রাশিয়ার প্রশংসাও করেছেন তিনি।

পরমাণু ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের একচ্ছত্র মনোভাবের কড়া সমালোচনা করলেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। সেইসঙ্গে ইরানের ইউরোপীয় দেশগুলোর চুক্তি নবায়ন করায় সহযোগিতা করার জন্য চীন ও রাশিয়ার প্রশংসাও করেছেন তিনি। গতকাল (রবিবার) চীন সফর শুরুর দিন এসব কথা বলে তিনি।

সন্ধ্যায় সরকারি সফরে চীনের শ্যানডং প্রদেশের কুইংডাও আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন ইরানী প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশন (এসজিও) এর শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নিতে চীন সফরে এসেছেন তিনি। আঞ্চলিক এই সংস্থার পর্যবেক্ষক সদস্য হিসেবে রয়েছে ইরান।

এই শীর্ষ সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে হাসান রুহানি বলেছেন, “যুক্তরাষ্ট্র অন্যদের ওপর যে নিজেদের নীতির বিস্তারের চেষ্টা করছে তা একটি বড় ধরনের হুমকি। এই বিস্তারের ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের অবাধ্যতার সাম্প্রতিক উদাহরণবা হলো পুরো বিশ্ব যখন আমাদের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি নবায়ণ করলো তখন তারা এর বরখেলাপ করলো।”

ইরানের পরমাণু কর্মসূচির প্রতিবাদে দেশটির ওপর অর্থনৈতিক অবরোধ করেছে যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্র দেশগুলো। তবে ২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্র এবং বিশ্বের প্রভাবশালী দেশগুলোর সঙ্গে ইরানের ‘জয়েন্ট কমপ্রেহেনসিভ প্ল্যান ফর অ্যাকশন’ নামে একটি চুক্তি সম্পাদিত হয়। এই চুক্তির কারণে ইরানের ওপর হতে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়।

তবে চলতি বছর ২০১৮ সালে চুক্তির মেয়াদ শেষ হলে তা আর নবায়ন করতে রাজি হয়নি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়াই চুক্তির অন্য দেশগুলো ইরানের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়ে নিতে রাজিও হয়।

এসজিও এর সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্রের এই চুক্তি হতে বের হয়ে যাওয়ার ঘটনায় ‘আক্ষেপ’ প্রকাশ করেছে চীন। চীনের প্রেসিডেন্ট শী জিনপিং বলেন, “চীন রাশিয়া ও অন্যান্য দেশগুলোর সঙ্গে এই চুক্তির কার্যকারিতার জন্য কাজ করতে আগ্রহী।”

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...