The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

পৃথিবীতেই পাওয়া গেছে ‘নরকের দ্বার’! [ভিডিও]

তুর্কমেনিস্তানের কারাকুম মরুভূমির দেরওয়াজে গ্রামের নিকটে অবস্থিত এই ‘নরকের দ্বার’

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সেই ভাব সম্প্রসারণের কথা নিশ্চয়ই সবার মনে আছে, কোথায় স্বর্গ, কোথায় নরক কে বলে তা বহুদূর!’ মানুষেরই মাঝে স্বর্গ নরক মানুষেতে সুরাসুর। এমনই ঘটনা হলো পৃথিবীতেই পাওয়া গেছে ‘নরকের দ্বার’!

পৃথিবীতেই পাওয়া গেছে ‘নরকের দ্বার’! [ভিডিও] 1

ঠিক তাই। স্বর্গ না থাকলেও ‘নরকের দ্বার’ এই পৃথিবীতেই এবার পাওয়া গেছে। এই ‘নরকের দ্বার’ দেখতে ভিড়ও জমান পর্যটকরা। চার দশক ধরে জ্বলছে এই ‘নরকের দরজা’র আগুন। ভূতাত্ত্বিকরা মনে করেছিলেন, এই আগুন হয়তো নিভে যাবে। তবে এই আগুন নেভার কোনো লক্ষণই নেই!

‘নরকের দ্বার’ দেখলে মহাকবি দান্তের ‘ডিভাইন কমেডি’-তে বর্ণিত নরকাগ্নির কথাই মনে আসে। এই আগুন একেবারেই সত্যি। তুর্কমেনিস্তানের কারাকুম মরুভূমির দেরওয়াজে গ্রামের নিকটে অবস্থিত এই ‘নরকের দ্বার’। ২৩০ ফুট ব্যাস এবং ৬৫ ফুট গভীর এই অগ্নিগহ্বর ‘শয়তানের সুইমিং পুল’ নামেও অধিক পরিচিত।

জানা যায়, ১৯৭১ সাল হতে জ্বলছে এই গহ্বরের আগুন। তুর্কমেনিস্তান ১৯৭১ সালে সোভিয়েতের অন্তর্ভুক্ত ছিল। কয়েকজন সোভিয়েত ভূতাত্ত্বিক খনিজ তেলের সন্ধানে কারাকুম মরু অঞ্চলে অভিযান চালিয়েছিলেন। কিছুদিনের মধ্যেই তারা টের পান, তারা ভূর্ভস্থ গ্যাসের এক ভাণ্ডারের উপরে বসে আছেন। তারা কয়েকটি স্থানে গর্ত খুঁড়ে এই গ্যাসকে মুক্ত করেন।

ভূতাত্ত্বিকরা ভূপৃষ্ঠের একটা বড় অংশ উন্মুক্ত করেন। আর তখন উন্মুক্ত হয়ে পড়ে ভূগর্ভের গ্যাসে জ্বলতে থাকা আগুন।

দেখুন ভিডিওটি

Loading...