৭শ’ বছরের পুরোনো গাছকে স্যালাইন দিয়ে বাঁচানো হচ্ছে!

এমন একটি বট গাছের সন্ধান পাওয়া গেছে দক্ষিণ ভারতের রাজ্য তেলেঙ্গানাতে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ অনেক পুরোনো গাছ নিয়ে মানুষের অনেক আগ্রহ রয়েছে। বিশেষ করে বট গাছ দীর্ঘদিন বেঁচে থাকে। এবার এমন এক বট গাছের সন্ধান পাওয়া গেছে যার বয়স ৭শ’ বছর। এই গাছিটিকে স্যালাইন দিয়ে বাঁচিয়ে রাখা হয়েছে!

এবার এমন একটি বট গাছের সন্ধান পাওয়া গেছে দক্ষিণ ভারতের রাজ্য তেলেঙ্গানাতে। এই গাছটি ৭শ’ বছরের পুরোনা। এই পুরোনো বট গাছকে পোকামাকড়ের হাত হতে রক্ষা করতে ব্যবহার করা হয়েছে স্যালাইনের বোতলে তরল মিশ্রিত কীটনাশক! প্রায় ৩ একর জমির ওপর থাকা এই জাতের গাছটিকে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ গাছ বলা হয়।

জানা গেছে, এই গাছটি পর্যটকদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয়। এই গাছটিকে উইপোকার উপদ্রব হতে রক্ষার চেষ্টার কমতি রাখছে না স্থানীয় কর্মকর্তারা। সংক্রমণ ঠেকাতে এই গাছের মূলে পাইপ বাঁধা হয়েছে।

এই বিষয়ে সরকারি কর্মকর্তা পান্ডুরাঙ্গা রাও জানিয়েছেন, প্রয়োজনে সার ব্যবহার করা হচ্ছে এই গাছটিতে। তিনি আরও বলেন, ‘গাছের ডালপালা যাতে ভেঙে না পড়ে সে জন্য সিমেন্ট প্লেটের ব্যবস্থাও করা হয়েছে।’

সংবাদ মাধ্যমকে অারেক কর্মকর্তা বলেন, ‘গাছের ক্ষতিগ্রস্থ জায়গাগুলোতে আমরা ফোঁটা ফোঁটায় তরল কীটনাশক দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি, যাতে করে অনেকটা স্যালাইন হতে ফোঁটার মতো যেভাবে পড়ে ঠিক সেভাবে গাছকে দেওয়া সম্ভব হয়।’

সংবাদমাধ্যমে আরও জানানো হয় যে, গাছটির ডালপালা ভাঙা রোধে গত বছরের ডিসেম্বর হতে কর্তৃপক্ষ পর্যটকদের ওপর কিছু বিধি নিষেধ দিয়েছে। উইপোকা মারাত্মকভাবে ক্ষতিসাধন করেছে গাছটির। অপরদিকে পর্যটকরা এই গাছের ডালপালায় ঝুলে বাঁকিয়ে দিচ্ছে গাছটি। সে কারণে পুরোনো এই ঐতিহ্যবাহী গাছটি রক্ষার জন্য কিছু বিধি নিষেধ দেওয়া হয়েছে পর্যটকদের জন্য।

Advertisements
Loading...