The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বিল গেটস লাইনে দাঁড়িয়ে বার্গার কিনলেন!

বিশ্বের শীর্ষ এই কোটিপতি বার্গার খেতে খুব ভালোবাসেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বিশ্বের একজন শীর্ষ ধনী হয়েও তিনি সাধারণ মানুষের মতো নিয়ম মেনে লাইনে দাঁড়িয়ে বার্গার কিনেছেন। এটি অন্তত আমাদের দেশের কোটিপতিদের জন্য অনুকরণীয় বিষয় হতে পারে। বিল গেটসের মতো একজন ধনী যদি এই কাজ করতে পারেন তাহলে আমরা কেনো পারবো না?

বিল গেটস লাইনে দাঁড়িয়ে বার্গার কিনলেন! 1

আমরা সবাই জানি মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস। বিশ্বের অন্যতম ধনীদের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে যার নাম। এতো অর্থের মালিক হলেও তিনি খুব সাদামাটা জীবন যাপন এবং সহজ স্বীকারোক্তির জন্য সর্বদা প্রশংসিত হয়েছেন। তিনি অন্য সবার মতো একটি বার্গারের জন্য লাইনে দাঁড়াবেন এটি যেনো বিশ্বাসই হতে চাই না। তবে সত্যিই তাই ঘটেছে। তিনি নিয়ম মেনে বার্গারের জন্য লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন! আমাদের দেশের কোনো কোটিপতির ক্ষেত্রে কী কখনও এমনটি ভাবা যাবে?

মাইক গ্যালোস নামে মাইক্রোসফটের সাবেক জনৈক এক কর্মীর ফেসবুকে পোস্ট করা ছবিতে দেখা গেছে এমন একটি ঘটনা। গত মঙ্গলবার তিনি এই ছবিটি ফেসবুকে শেয়ার করেন। ছবিতে দেখা যায় যে, বার্গার নিতে পকেটে দুহাত রাখা গেটস দাঁড়িয়ে রয়েছেন আরেকজনের ঠিক পেছনে। ইন্টারনেট দুনিয়ায় এই ছবি বর্তমানে ছড়িয়ে পড়েছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্বের শীর্ষ এই কোটিপতি বার্গার খেতে খুব ভালোবাসেন। পছন্দের এই খাবার খেতে যেখানে সেখানে নেমেও পড়েন তিনি। গত সপ্তাহে সিয়াটলের একটি ফাস্ট ফুড রেস্তোরাঁয় তাঁকে লাইনে দাঁড়িয়ে বার্গার কিনতে দেখা গেছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই ব্যাবসায়ী ধনকুবের বিল গেটসের মোট সম্পত্তির পরিমাণ ৯৫ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার! গত রবিবার অন্যান্য সাধারণ ক্রেতার মতোই তাকে খয়েরি সোয়েটার, ধূসর প্যান্ট ও কালো স্যান্ডেল পরে বার্গারের লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। সেখানে সাকুল্যে মাত্র ৭ ডলার ব্যয়ে চিকেন ফ্রাই, একটি বড় ঠাণ্ডা পানীয় এবং বার্গার কেনেন বিল গেটস।

মাইক্রোসফটের ওই সাবেক কর্মী মাইক গ্যালোস বলেন, ‘যখন আপনার সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ১০০ বিলিয়ন ডলার ও আপনি বিশ্বের সবচেয়ে বড় দাতব্য ফাউন্ডেশন চালান, আবার একটি বার্গারের জন্য আপনি লাইনেও দাঁড়ান তখন ঘটনাটি সত্যিই অন্যরকম।’ তবে তার ফেসবুক পোস্ট হতে ছবিটি দুনিয়াব্যাপী ছড়িয়ে পড়লেও ছবিটি তিনি নাকি তোলেননি। মাইক্রোসফটের গোপন একটি গ্রুপ হতে এই ছবিটি তিনি পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

Loading...