The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের ঐশী মোনালিসার লুকে

আন্তর্জাতিক নারী দিবসকে মাথায় রেখেই আরটিভি প্রতিবছরই আয়োজন করে থাকে জয়া আলোকিত নারী অনুষ্ঠান

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ইতালির চিত্রশিল্পী লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির আঁকা বিখ্যাত চিত্রকর্ম ‘মোনালিসা’। প্রায় পাঁচশত বছর আগের এই ছবির আবেদন কমেনি এখনও। রহস্যে ভরা মুখের রহস্যময় হাসি সবসময়ই আলোচনার বিষয়। এবার মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের ঐশী মোনালিসার লুকে এলেন!

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের ঐশী মোনালিসার লুকে 1

বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মডেল ও অভিনেত্রীদের দেখা যায় মোনালিসার সাজে তার লুকে হাজির হতে। তবে এবার সেই সাজে হাজির হলেন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ বিজয়ী জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। গত ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানে মোনালিসা হয়ে ধরা দিয়েছেন তিনি।

আন্তর্জাতিক নারী দিবসকে মাথায় রেখেই আরটিভি প্রতিবছরই আয়োজন করে থাকে জয়া আলোকিত নারী অনুষ্ঠান। প্রতিবারের মতো এবারও রাজধানীর সোনারগাঁওয়ে অনুষ্ঠিত হয়ে গেছে এটি। এই অনুষ্ঠানে ৮টি ক্যাটাগরিতে ৮ জন নারী বিভিন্ন লুকে হাজির হয়ে র‍্যাম্পে হেঁটেছেন। সেই ৮ জনের একজন হলেন ঐশী। তিনি হাজির হয়েছেন ৫০০ বছর আগের সৃষ্টি হওয়া মোনালিসার চিত্রকল্পে। পুরো অনুষ্ঠানটির কোরিওগ্রাফি করেছেন র‍্যাম্প মডেল বুলবুল টুম্পা। কস্টিউম ডিজাইন করেছেন ফ্যাশন ডিজাইনার ফারদিন বায়েজিদ।

এই বিষয়ে বুলবুল টুম্পা জানিয়েছেন, নারী দিবসকে মাথায় রেখে আরটিভি প্রতিবছরই আয়োজন করে জয়া আলোকিত নারী অনুষ্ঠানটি। মূলত তারাই আমাকে এই রকম প্ল্যান দেয় কাজ করার জন্য। মোনালিসার এই চিত্রকল্পের সঙ্গে যায় এমন একটা নামই আমার মাথায় আসে প্রথমে, সেটি হলো ঐশী। তাকে দেখতে অনেকটা মোনালিসার মতোই মনে হয় আমার কাছে। সেজন্যই তাকে সিলেক্ট করি। সে খুব সুন্দরভাবে সেটি ফুটিয়েও তুলেছে।

মোনালিসার সেই অভিব্যক্তি, মুখে রহস্যমাখা হাসি পৃথিবীর অসংখ্য মানুষকে অভিভূত করে রেখেছে তাতে সন্দেহ নেই। আজকাল রহস্যময় কিছুকে মোনালিসার হাসির সঙ্গে তুলনা করা হয়ে থাকে। এমন বিশ্ব বিখ্যাত চিত্রকল্পের লুকে হাজির হতে পেরে বেশ উচ্ছ্বসিত হয়েছেন ঐশী নিজেও।

এই বিষয়ে ঐশী বলেছেন, এই কাজটা আমার জন্য খুব চ্যালেঞ্জিং ছিল। কারণ হলো মোনালিসার এই চিত্রটি পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং আলোচিত। সেই রহস্যময়ী হাসির অধিকারিনী নারীর চরিত্র ধারণ করা আমার জন্য সত্যিই খুবই কঠিন একটি কাজ ছিল। ছোট বেলা থেকেই অনেকে দুষ্টুমি করে আমাকে মোনালিসা বলে ডাকতো। বড় হয়ে একদিন এই ক্যারেক্টার প্লে করবো তা কে জানতো? সবাই দেখে খুশি হয়েছে এবং প্রশংসাও করেছে। এটি আমার জীবনের জন্য অন্যতম একটি অভিজ্ঞতা হয়ে থাকবে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...