The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

৪ হাজার বছরের পুরনো শহরের সন্ধান ইরাকে

শহরটিতে পাওয়া শিলালিপি দেখেও ধারণা করা হচ্ছে যে, সেখানকার বাসিন্দারা কৃষিকাজের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরাকের কুর্দিস্তানে হারিয়ে যাওয়া ৪ হাজার বছরের পুরনো এক প্রাচীন শহরের ধ্বংসাবশেষের সন্ধান পেয়েছে ফরাসি একটি প্রত্নতাত্ত্বিকদের দল।

৪ হাজার বছরের পুরনো শহরের সন্ধান ইরাকে 1

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরাকের কুর্দিস্তানে হারিয়ে যাওয়া ৪ হাজার বছরের পুরনো এক প্রাচীন শহরের ধ্বংসাবশেষের সন্ধান পেয়েছে ফরাসি একটি প্রত্নতাত্ত্বিকদের দল।

ফ্রান্সের ন্যাশনাল সেন্টার ফর সায়েন্টিফিক রিসার্স (সিএনআরএস) জার্নালের এক প্রতিবেদনে এই তথ্যটি জানানো হয়।

জার্নালের বরাত দিয়ে ফক্সনিউজ বলেছে যে, মেসোপটেমিয়ান সাম্রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলে সীমান্তঘেঁষা প্রাচীন এই শহরটি প্রাচীন পাহাড়ি সম্প্রদায়ের (যারা লুল্লুবি নামেই পরিচিত) কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র ছিল বলে মনে করা হচ্ছে। শহরটিতে খননকাজ করার পর বড় আকারের পাথরের ভিত বেরিয়ে আসে। গবেষকদের ধারণা যে, এসব পাথর খ্রিস্টপূর্বের। এছাড়া শহরটিতে পাওয়া শিলালিপি দেখেও ধারণা করা হচ্ছে যে, সেখানকার বাসিন্দারা কৃষিকাজের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

প্রত্নতাত্ত্বিকরা মনে করছেন, শহরটি প্রায় ৪ হাজার বছর পূর্বে আগুনে পুড়ে ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল। প্রাচীণ এই শহরের নাম কী ছিল তার কিছুই নিশ্চিত করে বলতে পারেননি প্রত্নতাত্ত্বিকরা। তবে শহরটিতে আরও অনেক খননকাজ বাকি রয়েছে।

২০১২ হতে ২০১৮ সালের মধ্যে ৬ দফা খননকাজ শেষে জাগ্রোস পর্বতমালার কাছাকাছি প্রাচীন এই শহরের ধ্বংসাবশেষের খোঁজ পান গবেষকরা। ইতিপূর্বে প্রত্নতাত্ত্বিকরা আধুনিক সুলায়মানিয়াহ শহরের কাছাকাছি এই পুরনো শহরটির সন্ধানে গিয়েছিলেন। তবে সেসময় ইরাকে চলমান যুদ্ধের কারণে তাদের খননকাজ বাধাগ্রস্ত হয়েছিলো। যুদ্ধ না থাকায় তারা পরবর্তীতে এই খনন কাজ শুরু করেন।

Loading...