The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

স্প্যাম মেইলে ১০ লাখ ডলার পেয়ে ভাগ্য খুললো এক ব্যক্তির!

লিচফিল্ড নামে ওই ব্যক্তির ইয়াহু মেইলে হঠাৎ একদিন ই–মেইল আসে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমরা যারা ই–মেইল ব্যবহার করি, তারা প্রায় সকলেই জানি, মাঝেমধ্যেই ‘আপনি ১০ লাখ মার্কিন ডলার জিতেছেন’ বা ‘লটারি জিতেছেন’–এই ধরনের ই–মেইল এসে থাকে। তবে এবার সত্যিই এক ব্যক্তির ভাগ্য খুলে গেলো স্প্যাম মেইলে ১০ লাখ ডলার পেয়ে!

স্প্যাম মেইলে ১০ লাখ ডলার পেয়ে ভাগ্য খুললো এক ব্যক্তির! 1

‘আপনি ১০ লাখ মার্কিন ডলার জিতেছেন’ বা ‘লটারি জিতেছেন’– এসব যে ধাপ্পাবাজি বা হ্যাকার-প্রতারক চক্রের পাতা ফাঁদ—ব্যবহারকারীরা তা এতোদিনে বুঝেও গেছেন। অনেক সময় কোম্পানির প্রচারণা বিজ্ঞাপনের অংশও হয় এগুলো। এসব ই–মেইলকে ‘স্প্যাম’ বলা হয়ে থাকে। সম্প্রতি এমন এক স্প্যাম ই–মেইল খুলে ভাগ্যই খুলে গেছে মার্ক লিচফিল্ড নামে এক ব্যক্তির!

লিচফিল্ড নামে ওই ব্যক্তির ইয়াহু মেইলে হঠাৎ একদিন ই–মেইল আসে যে, তিনি নাকি ১৫ লাখ ডলার অর্থ পুরস্কার পেয়েছেন। মেইলটি খোদ ইয়াহু কর্তৃপক্ষই পাঠিয়েছে। এতে লেখা ছিল যে, ‘আমরা আপনাকে কিছু অর্থ দেবো। আপনি কী তা চান?’ কর্তৃপক্ষ জানায় যে, তাদের ওয়েবসাইটে একটি ‘বাগ’ ধরে দেওয়ায় এই পুরস্কারটি দিচ্ছে তারা।

ইয়াহুসহ এখন সব বড় অনলাইন-জায়ান্টরা তাদের ওয়েব কোডে ত্রুটি ধরিয়ে দিতে পারলেই এমন অর্থ পুরস্কার দিয়ে থাকে। এসব ত্রুটিকে বলা হয় ‘বাগ’।

লিচফিল্ড বলেন যে, তিনি ওই ত্রুটি ধরে দেওয়ার কথা অনেক আগেই ভুলে গিয়েছিলেন। কাজটি নিতান্তই স্বেচ্ছাসেবকের মতোই করেছিলেন তিনি। লিচফিল্ড বলেছেন, যে কেওই এই কাজটি করতে পারেন। এরজন্য কোডিং জ্ঞানও থাকতে হবে, এমন কোনো কথাও নেই। লিচফিল্ড নিজেও কোডিং পারেন না। কিন্তু এই পুরস্কার পেয়ে তিনি বড়ই খুশি। তার ভাগ্যের চাকা যে এভাবে খুলে যাবে তা তিনি কখনও স্বপ্নেও ভাবেননি।

Loading...