The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বিমান থেকে মহাকাশে রকেট উৎক্ষেপণ করবে ভার্জিন!

নতুন এই রকেটের লঞ্চপ্যাড ভূমি হতে ৩৫ হাজার ফুট ওপরে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বিশাল এক বিমানের ডানার নীচ হতে রকেট উৎক্ষেপণের টার্গেট নিয়ে ক্রমশ এগিয়ে চলেছে ভার্জিন অরবিট। সাধারণত ভূমি থেকেই লম্বালম্বিভাবে রকেট উৎক্ষেপণ করা হয়ে থাকে।

বিমান থেকে মহাকাশে রকেট উৎক্ষেপণ করবে ভার্জিন! 1

জানা গেছে, এই উপায়ের বাইরে কীভাবে ছোট রকেটগুলো উৎক্ষেপণ করা যায় সে লক্ষ্যেই কাজ করছে বিশ্বের একাধিক সংস্থা।

রিচার্ড ব্র্যানসনের মহাকাশ ভ্রমণ সংস্থা ভার্জিন গ্যালাকটিকের সহায়ক সংস্থা হলো এই ভার্জিন অরবিট। লঞ্চারওয়ান নামে ছোট রকেট বানিয়েছে এই সংস্থা। যা ওয়াশিং মেশিনের আকারের স্যাটেলাইটকে মহাকাশে পাঠাতে পারবে।

জানা গেছে, নতুন এই রকেটের লঞ্চপ্যাড ভূমি হতে ৩৫ হাজার ফুট ওপরে। কসমিক গার্ল নামে একটি বোয়িং ৭৪৭ বিমান রয়েছে ভার্জিন অরবিটের। যেটি লঞ্চারওয়ানকে আকাশে নিয়ে যায়। পরিকল্পনা অনুসারে বিমানের বাম ডানার নীচ রকেট খুলে নীচে পড়বে এবং তখন সঙ্গে সঙ্গেই রকেটের অগ্নিশিখা জ্বলে উঠবে এবং বুস্টারের সাহায্যে কক্ষপথের দিকে বাকি পথ পাড়ি দেবে।

কসমিক গার্ল বিমানের পাইলট হলেন কেলি লাটিমার। যুদ্ধবিমান ও ৭৪৭ ওড়ানোর অভিজ্ঞতাও রয়েছে তাঁর। একমাত্র সঠিক সময়েই বিমান হতে রকেট উৎক্ষেপণ করা হবে বলে জানিয়েছেন লাটিমার। তিনি আরও জানিয়েছেন, “সেখান থেকে রকেটটি নিজে নিজেই চলবে। আমরা সঠিক সময় এটি বিচ্ছিন্ন করি, রকেটটি ৫ পর্যন্ত গণনা করে ও তারপর এটির মোটর চালু করে মহাকাশের দিকেই যায়।”

জানানো হয় যে, যদিও এখন পর্যন্ত এই গোটা প্রক্রিয়াটি পরীক্ষানিরিক্ষার উপরেই রয়েছে। এখন পর্যন্ত বিমান হতে লঞ্চারওয়ান উৎক্ষেপণ করেনি ভার্জিন অরবিট। তবে মনে করা হচ্ছে যে, ইতিহাস তৈরি করে আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই মহাকাশে এভাবে রকেট উৎক্ষেপণ করা সম্ভব হবে।

Loading...