The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

কোমল পানীয় তৈরি হবে গাঁজা দিয়ে!

স্থানীয় উৎপাদক 'অরোরা ক্যানাবিস'-এর সঙ্গে গাঁজার স্বাদযুক্ত কোমল পানীয় উৎপাদনের বিষয়ে আলোচনা চলছে কোকাকোলার সঙ্গে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ গাঁজা আমাদের দেশে একটি নিষিদ্ধ পণ্য। তবে বিশ্বের বেশ কিছু দেশে এই গাঁজার ব্যবসা বেশ জমজমাট। শুধু তাই নয়, এবার এই গাঁজায় তৈরি হবে কোমল পানীয়!

কোমল পানীয় তৈরি হবে গাঁজা দিয়ে! 1

গাঁজা আমাদের দেশে একটি নিষিদ্ধ পণ্য। তবে বিশ্বের বেশ কিছু দেশে এই গাঁজার ব্যবসা বেশ জমজমাট। শুধু তাই নয়, এবার এই গাঁজায় তৈরি হবে কোমল পানীয়!

দিন দিন যেনো গাঁজার কদর বেড়েই চলেছে। কানাডায় প্রথম গাঁজাকে ওষুধ হিসেবে অনুমোদন দিলেও পরে তা আনন্দ বিনোদনের জন্য বৈধ করা হয়েছে।

শুধু তাই নয়, বর্তমানে এটি দিয়ে কোমল পানীয় তৈরির কথা ভাবছে ক্যাফেইনভিত্তিক পানীয় তৈরির জন্য সারা বিশ্বে পরিচিত প্রতিষ্ঠান কোকাকোলা।

বিবিসির এক খবরে বলা হয়, কানাডার বিএনএন ব্লুমবার্গ টিভি চ্যানেলের তথ্যমতে, স্থানীয় উৎপাদক ‘অরোরা ক্যানাবিস’-এর সঙ্গে গাঁজার স্বাদযুক্ত কোমল পানীয় উৎপাদনের বিষয়ে আলোচনা চলছে কোকাকোলার সঙ্গে। বলা হয়েছে যে, গ্রাহকদের মাদকাসক্ত করার জন্য নয়, তাদের শারীরিক যন্ত্রণা লাঘবই পানীয় প্রস্তুতকারীদের উদ্দেশ্য হবে! গত বছর এই বিষয়টি নিয়ে বিষদ আলোচনাও হয়।

এই বিষয়ে কোনো রকম মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানালেও কোকাকোলা বলছে যে, গাঁজাসংশ্লিষ্ট পানীয়ের বাজার পর্যবেক্ষণ করছেন তারা।

কোকাকোলা জানিয়েছে যে, তারা পর্যবেক্ষণ করে দেখছে যে, এই কোমল পানীয় তৈরির ক্ষেত্রে নন-সাইকোঅ্যাক্টিভ ক্যানাবিডিওল কিংবা চিত্ত উত্তেজিত করে না এমন গাঁজাজাতীয় দ্রব্যের ব্যবহার কতোটা জনপ্রিয়তা পাচ্ছে।

ক্যানাবিডিওল ক্যানাবিস হলো গাঁজার একটি উপাদান, যা ব্যথা কিংবা খিঁচুনির চিকিৎসার ক্ষেত্রে আরামদায়ক হতে পারে। তাছাড়া এর কোনো চিত্ত উত্তেজক প্রভাবও নেই।

কোমল পানীয় তৈরি হবে গাঁজা দিয়ে! 2

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি রাজ্যের উদাহরণ অনুসরণ করে গত বছর সারাদেশে গাঁজার বিনোদনমূলক ব্যবহার আইনত বৈধ করার কথা জানিয়েছিলো কানাডা।

চিকিৎসা কাজে অবশ্য অনেক আগে থেকেই গাঁজা বৈধ হয়েছে কানাডায়। এই সিদ্ধান্তের কারণে কানাডায় গড়ে উঠেছে বিশাল বিশাল আকারের গাঁজাশিল্প।

জানা গেছে, বিশ্বখ্যাত ‘করোনা’ বিয়ার প্রস্তুতকারী সংস্থা কনস্টেলেশন ব্র্যান্ডস গাঁজা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ক্যানোপি গ্রোথের ওপর ৪ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগও করেছে।

কোকাকোলা ও অরোরার অংশীদারিত্বের কারণে গাঁজার পানীয়ের বাজারে প্রথম নন-অ্যালকোহলিক পানীয় হিসেবে যাত্রা শুরু করবে কোক- এমনটিই আশা করা হয়েছে। তবে বর্তমানে এটি কোন পর্যায়ে রয়েছে সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

উল্লেখ্য, আমাদের দেশে গাঁজা একটি নেশার বন্তু। যে কারণে এটি একটি নিষিদ্ধ পণ্য। মাদকাসক্ত থেকে যুব সমাজকে রক্ষা করার প্রয়াস থাকে সব সময়। গাঁজার ক্ষেত্রেও এর ব্যতিক্রম কিছু নয়।

Loading...