The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

কয়েকটি রিসোর্ট পরিচিতি: প্রকৃতির সান্নিধ্যে কাটান কিছুটা সময়

প্রতিদিনের একঘেয়ে জীবন থেকে কিছুটা আয়েশী জীবনযাপন, প্রকৃতির মাঝেই সুন্দরভাবে দুটো দিন কাটিয়ে দেওয়া এমনটাও থাকে অনেকেরই প্রধান উদ্দেশ্য

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ প্রকৃতি আমাদের হৃদয়কে প্রশান্তি দেয়। তাই প্রকৃতির সান্নিধ্য পেতে হলে আপনাকে ভ্রমণ করতে হবে। আর সেই জন্য আপনাকে কিছু প্রস্তুতিও নিতে হবে।

কয়েকটি রিসোর্ট পরিচিতি: প্রকৃতির সান্নিধ্যে কাটান কিছুটা সময় 1

ভ্রমণে শুধু জায়গা বা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যেই মুগ্ধ হতে হবে তা অবশ্য নয়। প্রতিদিনের একঘেয়ে জীবন থেকে কিছুটা আয়েশী জীবনযাপন, প্রকৃতির মাঝেই সুন্দরভাবে দুটো দিন কাটিয়ে দেওয়া এমনটাও থাকে অনেকেরই প্রধান উদ্দেশ্য। তাই দেশের বিভিন্ন স্থানে গড়ে উঠেছে প্রাকৃতিক সান্নিধ্যে বিলাসবহুল নানা রিসোর্ট। এমনই কিছু রিসোর্টের কথা আজ আপনাদের সামনে তুলে ধরা হবে

গ্র্যান্ড সুলতান (Grand sultan)

গ্র্যান্ড সুলতান (Grand sultan) রিসোর্টটি বেড়ানোর জন্য বা প্রকৃতির কাছে যাওয়ার একটি মোক্ষম স্থান বলা যায়। এটি শ্রীমঙ্গলে অবস্থিত গ্র্যান্ড সুলতান টি-রিসোর্ট অ্যান্ড গলফ বাংলাদেশের অন্যতম পাঁচতারকা মানের একটি রিসোর্ট। এখানে রয়েছে ‘রোশনি মহল’ এবং ‘নওমি মঞ্জিল’ নামে ১ হাজার জনের সুবিধা সমৃদ্ধ ব্যাঙ্কোয়েট হল। এখানে আরও রয়েছে ফোয়ারা ডাইন, শাহী ডাইন এবং অরণ্য বিলাস নামে ৩৩০ আসন বিশিষ্ট ৫ তারকা মানের রেস্টুরেন্টও। এখানে আরও রয়েছে গলফ পাহাড়িকা, পুল ডেক এবং ক্যাফে মঙ্গল নামে ৩টি দুর্দান্ত ক্যাফে। অত্যাধুনিক এবং সুসজ্জিত জিমনেশিয়ামসহ এই রিসোর্টে আরও রয়েছে স্পা, সনা, জ্যাকুজি এবং ম্যাসাজ পার্লার। গ্র্যান্ড সুলতানের ওয়েবসাইট ঘুরলে আরও বিস্তারিত ধারণা আপনারা পেতে পারেন। www.grandsultanresort.com

সাজেক রিসোর্ট (sajek)

বলার অপেক্ষা রাখে না যে, খাগড়াছড়ির সাজেক বাংলাদেশের মানুষের অন্যতম একটি ট্র্যাভেল ডেস্টিনেশন জায়গা। এটি বিশাল এক খ্যাতিতে পরিণত হয়েছে গত কয়েক বছরে। তবে ট্যুরিস্ট স্পট হিসেবে জনপ্রিয় হলেও ফ্যামিলি গ্যাদারিংয়ের জন্য এখনও ততোটা জনপ্রিয় হয়ে উঠতে পারেনি ভালো হোটেল ও রিসোর্ট না থাকার কারণে। জানা গেছে, সাজেক রিসোর্টে মাত্র ৫টি ফ্যামিলি থাকার ব্যবস্থা রয়েছে। সবার জন্য উন্মুক্ত থাকলেও সামরিক বাহিনীর জন্য অগ্রাধিকার রয়েছে এখানে। তবে আর যাই হোক না কেনো, সাজেকের সকাল বেলার সূর্যোদয় ও সন্ধ্যার সূর্যাস্তের মনোমুগ্ধকর দৃশ্য সব দুঃখ নিমিষে ভুলিয়ে দিতে বাধ্য! বুকিং ও বিস্তারিত জানার জন্য যেতে পারেন সাজেক রিসোর্টের সাইটে। www.rock-sajek.com

দুসাই রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা (Dusai)

‘এক্সপেরিয়েন্সিং দ্য একজটিক নেচার’-এই ট্যাগলাইন নিয়ে শ্রীমঙ্গলের চা বাগানের সান্নিধ্যে গড়ে উঠেছে এই সুন্দরতম রিসোর্টটি। খুব কম সময়ের মধ্যেই প্রকৃতিপ্রেমীদের পছন্দের জায়গায় পরিণত হয়েছে এটি। পিকনিক এবং পার্টি গ্যাদারিংকে উৎসাহিত না করে যারা প্রকৃতির মাঝে কিছুটা নিরিবিলি সময় কাটাতে চায় কিংবা চা বাগানের পথে হেঁটে যান্ত্রিক জীবনের ব্যস্ততা ভুলতে চান, হানিমুনে এসে নিজেদের মতো করে একান্তে সময় কাটাতে চান তাদের জন্যই আদর্শ এই দুসাই রিসোর্টটি! ছবির মতো সুন্দর এই রিসোর্টের আদ্যোপান্ত জানতে ঢুঁ মারতে পারেন রিসোর্টের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটিতে। www.dusairesorts.com

ফয়’স লেক (foy’s lake)

ফয়’স লেক চট্টগ্রামে এটি সকলের জানা। চট্টগ্রাম শহরের মধ্যেই একটুখানি সবুজের ছোঁয়া, আনন্দের আবহ নিয়ে তৈরি হয়েছে ফয়’স লেক রিসোর্ট। লেক ভিউ ও চারপাশে সবুজ প্রাকৃতিক পরিবেশ এবং শহরের একেবারে কাছে হওয়াতে অনেকেই পছন্দ করেন এই রিসোর্টটি। ফয়’স লেক রিসোর্ট সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চাইলে দেখা যেতে পারে তাদের ফেসবুক পেজ বা ওয়েবসাইটে ঢুকে। www.foyslake.com

রাঙ্গামাটি ওয়াটার ফ্রন্ট (Rangamati Waterfront)

নাম শুনে মনে হতে পারে এটি বোধহয় রাঙ্গামাটিতে অবস্থিত। তবে মোটেও তা নয়, এই রিসোর্টটি আসলে ঢাকার অদূরেই গাজীপুরের চন্দ্রায় অবস্থিত। এই রিসোর্টটি মূলত পারিবারিক এবং করপোরেট পিকনিকের জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে। কামিনি, যামিনি, বিজ ফিল্ড এবং অ্যাম্ফিথিয়েটার নামে ৪ রকমের সুবিধাসম্পন্ন পিকনিক স্পট রয়েছে এই স্থানটিতে! পুরো রিসোর্টের চারপাশেই রয়েছে ঘন শালবনের এক বিশাল বাহার। নিরিবিলি পরিবেশে লেকে নৌ-ভ্রমণের ব্যবস্থাও রয়েছে। ওয়েবসাইট থেকে দেখে নিতে পারেন রিসোর্ট বুকিংয়ের আদ্যোপান্ত বিষয়গুলো। www.rangamatiwaterfront.com

সায়মান বিচ রিসোর্ট (Sayeman Beach Resort)

এই সায়মান বিচ রিসোর্টের সুখ্যাতির কারণ হলো তাদের ইনফিনিটি সুইমিংপুল! সুইমিংপুলে বসে থেকেই যদি এক গ্লাস কফি কিংবা জুসের সঙ্গে দিগন্ত বিস্তৃত সমুদ্রের আড়ালে লুকিয়ে যাওয়া সূর্যাস্ত উপভোগ করা যায় তাহলে আর কী লাগে আপনার! তবে সুইমিংপুলের পাশাপাশি অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাও রয়েছে একেবারে ষোলআনা! লাইফস্টাইল জিম ও মার্কো পোলো গেমস রুমের পাশাপাশি বিচ সারপ্রাইজ নামে মজার একটি সার্ভিসও রয়েছে এই রিসোর্টেই। এই সার্ভিস গ্রহণ করলে স্থানীয় মানুষের সাহায্য নিয়ে সেই ব্যক্তির বন্ধু-বান্ধব, পরিবার কিংবা প্রেয়সীর অগোচরেই বিচে যে কোনো কিছু একটা সারপ্রাইজের ব্যবস্থা করে দেবে। এই ব্যাপারে আরও বিস্তারিত জানতে হলে ঘুরে আসতে পারেন রিসোর্টে ও বুকিং দিতে পারেন এই ওয়েব অ্যাড্রেস থেকে। www.sayemanresort.com

দ্যা বেস ক্যাম্প, বাংলাদেশ (Base Camp)

আমরা সাধারণত ভাবে রিসোর্ট বলতে আরাম-আয়েশে ছুটির দিন কাটানোর যে চিত্র আমাদের সামনে ফুটে ওঠে সেটিকেই বুঝি। সেই আরাম-আয়েশের জন্যই প্রতিষ্ঠিত গাজীপুরে দ্যা বেস ক্যাম্প। এটি সম্পূর্ণই ভিন্ন বলতে গেলে। এখানে রুম নিয়ে প্রকৃতির সান্নিধ্য উপভোগ করার পাশাপাশি জয়েন করতে পারবেন বিভিন্ন অ্যাডভেঞ্চারমূলক কার্যক্রমেও। এখানে আরও রয়েছে বোটিং, কায়াকিং, ফুটবল, আর্চারি, ক্রিকেট, ব্যাডমিন্টন, জাঙ্গল ট্রেকিং, ট্রেজার হান্ট, ক্যাম্প ফায়ার, সাইক্লিংয়ের সুযোগ!

এখানে স্কুলের বাচ্চাদের জন্য রয়েছে স্পেশাল জোন এবং আলাদা প্যাকেজও। এছাড়াও রয়েছে ফ্যামিলি, ফ্রেন্ডস এবং করপোরেট গ্রুপদের জন্য পৃথক প্যাকেজ বাছাইয়ের সুযোগ। সবচেয়ে চমকপ্রদ ব্যাপার হলো, এই রিসোর্টে রাতের বেলা ক্যাম্প ফায়ার করে ক্যাম্পে রাতযাপনের সুযোগও থাকছে। এই বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানতে হলে ওয়েবসাইটে ঢুকুন। www.thebasecampbd.com

Loading...