The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বায়োমেট্রিক হাজিরা মেশিন

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকদের উপস্থিতি শতভাগ নিশ্চিত করতে বায়োমেট্রিক হাজিরা সিস্টেম চালুর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সারাদেশে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকদের উপস্থিতি শতভাগ নিশ্চিত করতে বায়োমেট্রিক হাজিরা সিস্টেম চালুর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। গত ২৬ জুন এক চিঠিতে প্রতিটি বিদ্যালয়ে ডিজিটাল হাজিরা মেশিন স্থাপনের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিলো। ওই নির্দেশনায় বলা হয় যে, স্কুলের সরকারি ফান্ড হতে স্কুল পরিচালনা কমিটি একটি করে মেশিন কিনবে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বায়োমেট্রিক হাজিরা মেশিন 1

সারাদেশে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকদের উপস্থিতি শতভাগ নিশ্চিত করতে বায়োমেট্রিক হাজিরা সিস্টেম চালুর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। গত ২৬ জুন এক চিঠিতে প্রতিটি বিদ্যালয়ে ডিজিটাল হাজিরা মেশিন স্থাপনের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিলো। ওই নির্দেশনায় বলা হয় যে, স্কুলের সরকারি ফান্ড হতে স্কুল পরিচালনা কমিটি একটি করে মেশিন কিনবে।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায় যে, মেশিন পদ্ধতি বাস্তবায়নে সহায়তার জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য কম টাকায় উন্নতমানের বায়োমেট্রিক হাজিরা মেশিন বিক্রির ঘোষণা দিয়েছে সিস্টেমআই টেকনোলজিস লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানটি গত ৭ বছর ধরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল হাজিরা বা বায়োমেট্রিক অ্যাটেনডেন্স সল্যুশন দিয়ে আসছে।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে আরও বলা হয় যে, সম্প্রতি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে দেশের সকল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ডিজিটাল হাজিরা ডিভাইস স্থাপন করার উদ্যোগ গ্রহণ করলে এই বিষয়ে জোরালো উদ্যোগ গ্রহণ করে সিস্টেমআই টেকনোলজিস লিমিটেড। মন্ত্রণালয় অনুমোদিত টেকনিক্যাল সেপসিফিকেশন ঠিক রেখে কয়েকটি র্ব্যান্ডের গুণগতমান সম্পন্ন ডিভাইস নিয়ে প্যাকেজ ছাড়া হয়।

খবরে আরও জানা গেছে যে, সেপসিফিকেশনে প্রতিটি মেশিনেই রয়েছে অত্যাধুনিক ফিঙ্গারপ্রিন্ট সনাক্তকরণ প্রযুক্তি যা ৫ হাজার মানুষের হাতের ছাপ সংরক্ষণ করা সম্ভব। প্রতিটি ডিভাইস অনলাইনেই নিয়ন্ত্রণ করা যবে। ইন্টারনেটের জন্য সাধারণ ব্রডর্ব্যান্ড লাইন ছাড়াও ওয়াইফাই, জিপিআরএস কিংবা থ্রিজি সিম ব্যবহার করে রিপোর্ট দেখা ও কেন্দ্রিয়ভাবে সার্ভারে ডাটা সংরক্ষণও করা যাবে।

জানা গেছে, এই ডিভাইসটিতে একবার চার্জ দিলে ৪ হতে ৫ ঘন্টা বিদ্যুৎ ছাড়াই চলবে। ইউএসবি ইন্টারফেসের মাধ্যমে যুক্ত হয়েও ডিভাইসগুলো তথ্য আদান-প্রদান করতে সক্ষম। সিস্টেমআই ডিভাইসগুলোতে ৩ বছরের ওয়ারেন্টি প্রদান করা হচ্ছে। সরাসরি ঢাকার নিকেতন অফিস কিংবা সারাদেশ থেকে ডিভাইসটি ডেলিভারি নেওয়া যাবে বলে জানানো হয়েছে।

Loading...