The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ভ্রমণ: ঘুরে আসুন কুমিল্লার রূপবান মুড়া

কুমিল্লা শহর হতে প্রায় ৯ কিলোমিটার দূরে কোটবাড়িতে অবস্থিত একটি প্রত্নতাত্ত্বিক স্থাপনার নামই হলো রূপবান মুড়া

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সত্যিই এক অন্য রকম অনুভূতি হবে আপনার। কারণ কুমিল্লার রূপবান মুড়া একটি ঐতিহাসিক স্থান। যা দেখলে যেমন আপনার মন ভরতে তেমনি ইতিহাসের অনেক কিছুই জানা হবে।

ভ্রমণ: ঘুরে আসুন কুমিল্লার রূপবান মুড়া 1

কুমিল্লা শহর হতে প্রায় ৯ কিলোমিটার দূরে কোটবাড়িতে অবস্থিত একটি প্রত্নতাত্ত্বিক স্থাপনার নামই হলো রূপবান মুড়া। ৯০ দশকে কুমিল্লা-কালিবাজার সড়কের কাছে অবস্থিত বাংলাদেশের প্রাচীন ইতিহাসের একটি অন্যতম এই নিদর্শনটি খনন করা হয়। কথিত রয়েছে যে, রহিম ও রূপবানের ভালোবাসার এক অন্যতম নিদর্শন হলো এই স্থান। তাদের অসম প্রেমের নানা ঘটনা এবং কাহিনী রয়েছে সবুজ প্রকৃতির মাঝে গড়ে উঠা এই ঐতিহাসিক স্থানকে ঘিরেই।

প্রত্নতাত্ত্বিক খননের মাধ্যমে রূপবান মুড়া হতে ৩৪.১৪ ও ২৫ মিটারের একটি বিহার (ভিক্ষুদের আশ্রম) এবং ২৮.৯৬ মিটারের একটি মন্দিরের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও মন্দিরের পূর্ব দিক থেকে একটি বৃহদাকার কারুকার্যময় বৌদ্ধমূর্তি এবং ৫টি মুদ্রা পাওয়া গেছে, যা ময়নামতি জাদুঘরে সংরক্ষিত রয়েছে। ধারণা করা হয় যে, এই প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনগুলো ৭ম থেকে ১২শ শতাব্দীর দিকে নির্মিত হয়েছিলো। রূপবান মুড়ার উঁচু বিহারের উপর দাঁড়ালে সূর্যাস্তের মনোমুগ্ধকর সব দৃশ্য দেখা যায়। তাই বিকেল বেলা ঘুরতে এবং নিরিবিলি সময় কাটাতে কুমিল্লা শহরের স্থানীয় বাসিন্দা সহ সারা দেশ থেকে অসংখ্য পর্যটক রূপবান মুড়া পরিদর্শনে ছুটে আসেন।

যাবেন কিভাবে

রূপবান মুড়া যেতে হলে আপনাকে কুমিল্লা জেলায় আসতে হবে। ঢাকা থেকে ট্রেন ও বাসে করে কুমিল্লা যাওয়া যায়। কমলাপুর হতে মহানগর প্রভাতী/গোধূলী, উপকূল এক্সপ্রেস, পাহারিকা এক্সপ্রেস এবং তূর্ণা নিশীতা সহ চট্টগ্রামগামী বিভিন্ন ট্রেনে করে আপনি কুমিল্লা যেতে পারবেন।

সড়কপথে ঢাকার সায়েদাবাদ কিংবা কমলাপুর বাস স্ট্যান্ড থেকে রয়্যাল কোচ, এশিয়া এয়ারকন, এশিয়া লাইন, বিআরটিসি, প্রিন্স, তৃষার মতো নন-এসি/এসি বাস ছাড়াও চট্টগ্রাম কিংবা ফেনিগামী বাসে কুমিল্লা যাওয়া যাবে। বাস ভেদে ভাড়া পড়বে ১৭০ টাকা হতে ৩০০ টাকা। বাস থেকে কুমিল্লার কোটবাড়ি বাস স্ট্যান্ডে নেমে কুমিল্লা-কালির বাজারের ঠিক দক্ষিণ দিকে বার্ড ও বি.জি.বির স্থাপনার মাঝে টিলার উপর অবস্থিত রূপবান মুড়ায় আপনি যেতে পারবেন।

থাকবেন কোথায়

কুমিল্লা কান্দিরপাড়, শাসনগাছা এবং ষ্টেশন রোডে বিভিন্ন মানের হোটেল রয়েছে। এদের মধ্যে হোটেল সোনালী, হোটেল ভিক্টোরিয়া আবাসিক, হোটেল ড্রিম ল্যান্ড, আমানিয়া রেস্ট হাউজ, হোটেল মেলোডি, মাসুম রেস্ট হাউজ, হোটেল নূর উল্লেখযোগ্য থাকার হোটেল রয়েছে।

খাবেন কোথায়

রূপবান মুড়া যাওয়ার পথে সৌদিয়া হোটেল, ইরিশ হিল হাইওয়ে হোটেল, হোটেল ময়নামতি, ঝাল বাংলা রেস্তোরা, উজান হাইওয়ে, আনোয়ার হোটেল, সাকিব হোটেল এবং লিজা হোটেল সহ বেশকিছু ভালো মানের রেস্টুরেন্টে আপনার পছন্দের খাবার খেতে পারেন। অবশ্যই কুমিল্লার মনোহরপুরের মাতৃভাণ্ডারের বিখ্যাত রসমালাই এবং রসগোল্লা, ভগবতীর পেড়া, মিঠাইয়ের মালাই চপের স্বাদ নিতে যেনো ভুলবেন না আপনি। এগুলো প্রসিদ্ধ এব বিখ্যাত মিষ্টি।

তথ্যসূত্র: https://vromonguide.com

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...