The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

কোনো রকম ডানা না ঝাপটিয়েই ১০০ মাইল উড়তে পারে আন্দিয়ান!

এক গবেষণায় দেখা যায়, পাখিটি পাখা ঝাপটানো ছাড়াই ঘণ্টার পর ঘণ্টা বাতাসে ভেসে থাকতে পারে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সত্যিই আশ্চর্য হওয়ার বিষয়। কারণ আমরা জানি পাখি ওড়ার সময় ডানা ঝাপটাই। কিন্তু কোনো রকম পাখা না ঝাপটিয়েই প্রায় ১০০ মাইল উড়তে সক্ষম আন্দিয়ান কন্ডর নামে এই পাখিটি!

কোনো রকম ডানা না ঝাপটিয়েই ১০০ মাইল উড়তে পারে আন্দিয়ান! 1

এক গবেষণায় দেখা যায়, পাখিটি পাখা ঝাপটানো ছাড়াই ঘণ্টার পর ঘণ্টা বাতাসে ভেসে থাকতে পারে। আন্দিয়ান কন্ডর বা আন্দিজের কন্ডর শকুন গোত্রীয় একটি পাখি। এই পাখির বৈজ্ঞানিক নাম ভালচার গ্রাইফাস। এরা কার্থাটিডি পরিবারের সদস্য ও ভালচারগণেরও একমাত্র সদস্য।

আন্দিজ পর্বতমালা ও এর সংলগ্ন দক্ষিণ আমেরিকার পশ্চিমাংশের প্রশান্ত মহাসাগরের উপকূলে এই পাখিদের দেখা যায়। ওজন ও পাখার দৈর্ঘ্যে এরাই পৃথিবীর উড়তে সক্ষম পাখিদের মধ্যে বৃহত্তম বলে মনে করা হয়।

এই পাথির ওজন ১৫ কেজি এবং এদের পাখার দৈর্ঘ্য সর্বোচ্চ ১০ ফুট ১০ ইঞ্চি। সম্প্রতি দক্ষিণ আমেরিকার পাতাগোনিয়ায় ৮টি পাখি নিয়ে গবেষণার কাজ শুরু করেন ব্রিটেনের সোয়ানসি ইউনিভার্সিটির একদল বিজ্ঞানী।

গবেষণার জন্য পাখিগুলোর পিঠে রেকর্ডিং যন্ত্র বেঁধে দেওয়া হয়। এরা পুরো উড্ডয়নকালে মাত্র ১ শতাংশ সময় তাদের পাখা ঝাপাটানোর কাজে সময় ব্যয় করেছে।

সোয়ানসি ইউনিভার্সিটির জীববিজ্ঞানী অধ্যাপক এমিলি শেফার্ড সংবাদ মাধ্যমকে এই বিষয়ে বলেন, আমরা জানতাম, ওড়ার ক্ষেত্রে কন্ডর পাখিরা দক্ষ পাইলটদের মতোই। তবে ওদের পিঠে রেকর্ডিং যন্ত্র বেঁধে দেওয়ার পর আমরা আরও আশ্চর্য হলাম। কিভাবে একটি পাখি দীর্ঘ সময় ডানা না ঝাপটিয়ে উড়তে পারে!

তথ্যসূত্র : গার্ডিয়ান অবলম্বনে দেশে বিদেশে

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...