কফি আত্মহত্যার ঝুঁকি কমায়!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ আত্মহত্যা মানুষের একটি মনোরোগের ফসল। আর এ আত্মহত্যা নিয়ে বিজ্ঞানীদের গবেষণারও শেষ নেই। এবার তারা বলেছেন, কফি পান করলে আত্মহত্যার ঝুঁকি কমে।

Coffee

মানুষ নানা কারণে আত্মহত্যা করে। ভয়, হতাশা, একঘেয়েমি, জীবনের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলাসহ নানা কারণে মানুষ আত্মহত্যাপ্রবণ হয়ে উঠতে পারে। উন্নত বিশ্বে আত্মহত্যার ক্রমবৃদ্ধি এটাই প্রমাণ করে, মানুষ কেবল কষ্টে নয়, সম্পদের অভাব না থাকলেও বিষাদে আক্রান্ত হতে পারে এবং একসময় জীবনের ভার বহনে অক্ষম হয়ে নিজেকে শেষ করেও দিতে পারে। মজার ব্যাপার হলো, কোনো মানুষই জানে না, সে আসলে আত্মহত্যাপ্রবণ মানসিকতাসম্পন্ন কি-না।

এসব হতাশাগ্রস্ত মানুষের জন্য একটা শুভসংবাদ হয়ে উঠতে পারে সম্প্রতি প্রকাশিত বিজ্ঞানীদের তথ্য-উপাত্তসংবলিত একটি গবেষণাপত্র। এতে দেখানো হয়েছে, প্রতিদিন নিয়মিত কফিপানে আত্মহত্যার প্রবণতা অর্ধেকে নেমে আসে।

যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড স্কুল অব পাবলিক হেলথের গবেষকরা জানান, দিনে দুই থেকে চার কাপ কফিপান প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য খুবই কার্যকর একটা অভ্যাস। যুক্তরাষ্ট্রের হাফিংটন পোস্টে প্রকাশিত খবরে বিজ্ঞানীদের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, দিনে দুই থেকে চার কাপ কফি খেলে আত্মহত্যার প্রবণতা ৫০ ভাগ কমে আসে।

প্রায় দুই লাখ অংশগ্রহণকারীর ওপর গত ১৬ বছর পর্যবেক্ষণের পর এই গবেষণাপত্র দাঁড় করানো হয়েছে। গবেষণায় অবশ্য কফি ছাড়াও চা, চকোলেট, ক্যাফেইনযুক্ত নরম খাবারকেও বিবেচনা করা হয়েছে। তবে দেখা গেছে, আত্মহত্যার প্রবণতা কমানোর মূলে কেবল কফিই কাজ করে। তবে অতিরিক্ত কফিপান অন্য ক্ষেত্রে বিরূপ প্রতিক্রিয়া ফেলতে পারে এমন কথাও সঙ্গে সঙ্গে বলা হয়েছে। তথ্যসূত্র : মেডিকেল নিউজ টুডে/ জিনিউজ অনলাইন।

Advertisements
Loading...