The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বিশ্বের ৯টি দেশেই রয়েছে ১৩,৪০০ পারমাণবিক বোমা!

২০২০ সালের জানুয়ারিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন এ তথ্য প্রকাশ করে স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউট (সিপ্রি)

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বিশ্বের ৯টি দেশের কাছে বর্তমানে ১৩ হাজার ৪০০টি পারমাণবিক বোমা রয়েছে বলে জানিয়েছে স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউট (সিপ্রি)।

সংস্থাটি ২০২০ সালের জানুয়ারিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন এ তথ্য প্রকাশ করে। তবে এসব বোমার সংখ্যা কমানোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলেও জানানো হয় ওই প্রতিবেদনে।

রাশিয়া

স্টকহোম আন্তর্জাতিক শান্তি গবেষণা ইনস্টিটিউট (সিপ্রি) তথ্য অনুসারে রাশিয়ার কাছেই বর্তমানে সবচেয়ে বেশি আণবিক বোমা রয়েছে। দেশটিতে এই ধরনের বোমার সংখ্যা অন্তত ৬ হাজার ৩৭৫টি। ১৯৪৯ সালে রাশিয়া প্রথম পারমাণবিক পরীক্ষা করে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রথম পারমাণবিক বোমা বানায় এবং একমাত্র দেশ যারা যুদ্ধেও এই অস্ত্র ব্যবহার করেছে। দেশটির কাছে এখন ৫ হাজার ৮০০টি পারমাণবিক বোমা রয়েছে বলে এক তথ্যে জানা যায়।

চীন

চীনের কাছে ৩২০টি পারমাণবিক বোমা রয়েছে। রাশিয়া কিংবা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তুলনায় সংখ্যাটা কম হলেও দেশটি ধীরে ধীরে এই সংখ্যায় বাড়াচ্ছে। যেমন- ২০১৯ সালেও তাদের কাছে ২৯০টি বোমা ছিল। স্থল, আকাশ কিংবা সমুদ্রপথে সেগুলো ছোঁড়াও সম্ভব।

ফ্রান্স

ফ্রান্সের কাছে পারমাণবিক ওয়ারহেড আছে ২৯০টি। এগুলোর অধিকাংশই রয়েছে সাবমেরিনে। দেশটির অন্তত একটি সাবমেরিন সবসময় পারমাণবিক বোমা নিয়ে টহল দেয়।

যুক্তরাজ্য

যুক্তরাজ্যের কাছে ২১৫টি পারমাণবিক বোমা রয়েছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য এই দেশটি ১৯৫২ সালে প্রথম পারমাণবিক পরীক্ষা চালিয়েছিলো।

পাকিস্তান

পাকিস্তান ইতিমধ্যে তিনবার প্রতিবেশী ভারতের সঙ্গে যুদ্ধে জড়িয়েছে। দেশটির রয়েছে ১৬০টি আণবিক বোমা। সাম্প্রতিক সময় পারমাণবিক বোমার সংখ্যা আরও বাড়িয়েছে দেশটি। অনেকেই আশঙ্কা করেন, প্রতিবেশীর সঙ্গে দেশটির লড়াই কোনো এক সময় পারমাণবিক যুদ্ধে রূপও নিতে পারে।

ভারত

পারমাণবিক বোমার সংখ্যা ক্রমেই বাড়াচ্ছে ভারতও। দেশটি ১৯৭৪ সালে প্রথম পারমাণবিক পরীক্ষা চালায়। সিপ্রির তথ্য অনুযায়ী জানা যায়, তাদের কাছে বর্তমানে ১৫০টি বোমা রয়েছে। ভারত অবশ্য জানিয়েছে যে, তারা আগে কোনো দেশকে কখনও আঘাত করবে না, যেসব দেশের পারমাণবিক বোমা নেই, সেইসব দেশের বিরুদ্ধে তারা এই ধরনের বোমা ব্যবহার করবে না কোনোদিনই।

উত্তর কোরিয়া

পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ে গোপনীয়তা অবলম্বন করে থাকে উত্তর কোরিয়াও। বর্তমানে দেশটির কাছে থাকা বোমার সংখ্যা আনুমানিক ৩০ হতে ৪০টি। তথ্যসূত্র: ডয়চে ভেলে

ইসরায়েল

ইসরায়েল অবশ্য নিজের দেশের পরমাণু কর্মসূচি সম্পর্কে তেমন কিছুই জনসমক্ষে প্রকাশ করে না। যদিও দেশটির ৯০টি পারমাণবিক ‘ওয়ারহেড’ রয়েছে বলে উল্লেখ করেছে সিপ্রি।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...