The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এমন এক ফিচার যারজন্য স্যামসাং ফোন আর হারাবে না

হারানো ফোনে ইন্টারনেট কানেকশন এনাবল থাকলে এই ফিচারটি আপনাকে ডিভাইসটি খুঁজে পেতে ও ফোনটি লক করতে সাহায্য করবে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ যদি আপনার হাতের স্মার্টফোনটি কোথাও রেখে ভুলে যান কিংবা হারিয়ে ফেলেন, সেক্ষেত্রে ‘ ফাইন্ড মাই ডিভাইস’ কিংবা ‘ ফাইন্ড মাই মোবাইল’ ফিচারটি খুবই কার্যকরী একটি ফিচার।

এমন এক ফিচার যারজন্য স্যামসাং ফোন আর হারাবে না 1

বিভিন্ন স্মার্টফোনের সেটিংসে এই ফিচারটি দেখা যায়। হারানো ফোনে ইন্টারনেট কানেকশন এনাবল থাকলে এই ফিচারটি আপনাকে ডিভাইসটি খুঁজে পেতে ও ফোনটি লক করতে সাহায্য করবে।

কোনো কোনো সময় আপনি ফোনের পাসওয়ার্ড বা পিন কোড ভুলে গেলেও এই ফিচারের সাহায্যে ফোনটি আনলক করতে পারেন অনায়াসে। তবে যদি আপনার হারানো ফোনটি অফলাইন মোডে থেকে থাকে, তাহলে কী হবে?

এই ভাবনার বিষয়টি মাথায় রেখেই এবার ফাইন্ড মাই মোবাইলে ফিচারে বড়সড় পরিবর্তন আনতে চলেছে বিশ্বখ্যাত মোবাইর স্যামসাং। যার কারণে কোনোরকম ইন্টারনেট কানেকশন ছাড়াই ফাইন্ড মাই মোবাইল ফিচারটি স্যামসাংয়ের স্মার্টফোন ইউজাররা ব্যবহার করতে পারবেন।

২২ আগস্ট এক্সডিএ-এর এক ডেভেলপার ম্যাক্স ওয়েইনবাচ এই বিষয়ে একটি টুইট পোস্ট করে জানিয়েছেন যে, স্যামসাং ‘ফাইন্ড মাই মোবাইল’ অপশনে একটি নতুন ফিচার যুক্ত করা হয়েছে।

স্যামসাংয়ের দাবি হলো, এবার থেকে হারিয়ে যাওয়া ফোনটি কোনো নেটওয়ার্কের সঙ্গে সংযুক্ত না থাকলেও ইউজার অন্য ব্যক্তির গ্যালাক্সি ডিভাইস হতে সেটির সন্ধান করতে পারবেন।

এই ফিচারটি হারানো গ্যালাক্সি ডিভাইসগুলি স্ক্যান করতেও সহায়তা করবে। এমনকি ডিভাইসের সঙ্গে সংযুক্ত থাকা স্মার্টওয়াচ ও ইয়ারবাডগুলিও এই ফিচারের সঙ্গে খুঁজে পাওয়া যাবে।

যদি আপনার ইন্টারনেট কানেকশন না থাকা অবস্থায় ফোনটি হারিয়ে যায়, তাহলে ফোনটি কাছাকাছি থাকলে অন্য গ্যালাক্সি ফোনেও সেটি প্রদর্শিত হবে। ওয়েইনবাচের টুইটে শেয়ার করা স্ক্রিনশট হতে জানা যায় যে, ইউজারদের এই সুবিধা পেতে হলে অফলাইন সার্চ পেজে প্রবেশ করে সেখান থেকে এই অফলাইন ট্র্যাকিং ফিচারটি অন করে নিতে হবে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...