The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

নতুন ধারাবাহিক ‘মাশরাফি জুনিয়র’ আসছে

নতুন এই ধারাবাহিক নাটকটিতে অভিনয় করেছেন শতাব্দী ওয়াদুদ, গোলাম ফরিদা ছন্দা, চিত্রলেখা গুহ, ফজলুর রহমান বাবুসহ অনেকেই

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ নতুন ধারাবাহিক ‘মাশরাফি জুনিয়র’ শিরোনামে ধারাবাহিক নাটক আসছে। সাজ্জাত সুমনের পরিচালনায় নাটকটির চিত্রনাট্য লিখেছেন আসফিদুল হক ও সংলাপ মো. মারুফ হাসান।

নতুন ধারাবাহিক ‘মাশরাফি জুনিয়র’ আসছে 1

নতুন এই ধারাবাহিক নাটকটিতে অভিনয় করেছেন শতাব্দী ওয়াদুদ, গোলাম ফরিদা ছন্দা, চিত্রলেখা গুহ, ফজলুর রহমান বাবু, রুনা খান, লুৎফুর রহমান জর্জ, আনিন্দ, সাফানা নমনি, হামিমসহ অনেকেই।

এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, দীপ্ত টিভির নিজস্ব স্টুডিওতে শুরু হতে যাচ্ছে নাটকটির শুটিং। সম্পূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুটিং হবে। নাটকটির আউটডোর শুটিংয়ের কাজ টাঙ্গাইলে শেষ হয়েছে লকডাউনের আগেই। শতাধিক শিশু-কিশোরের অডিশন নিয়ে সেখান থেকে নির্বাচিত শিশু-কিশোরকে নিয়ে শুরু হতে যাচ্ছে এই নাটকটি।

নতুন এই ধারাবাহিকটির গল্পে দেখা যাবে, মন্ডা ও মণি দুই ভাইবোন। মন্ডার বয়স ১৩ ও মণির বয়স ১০। বাবা-মা নেই তাদের। পাশের বাড়িতেই থাকেন তাদের চাচা-চাচি। গ্রামজুড়ে আসে উৎসবের এক মৌসুম। সামনেই নির্বাচন। বর্তমান চেয়ারম্যানের ইচ্ছা, ‘চেয়ারম্যান কাপ’ দিয়েই মানুষকে দেখিয়ে দেবেন তার কি শক্তি। তবে চেয়ারম্যানের এই কাপ পাওয়ার মাঝে বাধা হয়ে দাঁড়াই মন্ডা। পুঁচকে এই মন্ডাদের কাছে হেরে যাওয়া কিছুতেই যেনো মেনে নেবেন না চেয়ারম্যান, তবে মন্ডা খেললে হেরে যাওয়ার সম্ভাবনাই থাকবে বেশি। রাতের অন্ধকারে কে বা কারা এসে মণির পাশ থেকেই তুলে নিয়ে যায় মন্ডাকে।

মণি কাঁদতে কাঁদতে তাদের পেছনে ছোটে তবে বস্তার মধ্যে ভরে, লরিতে তুলে তারা মন্ডাকে কোথায় নিয়ে যায় মণি বুঝতেও পারে না। পরে পুলিশ আসে, সবাই চেয়ারম্যানের হাতের ব্যাপারটা উপলব্ধি করতে পারে, তবে কেও টুঁ শব্দটিও করে না। মণি জানে মন্ডা ফিরবে। যেখানে ক্রিকেট আছে সেখানেই ফিরবে মন্ডা। ওদিকে চাচা জানায়, মন্ডা হয়তো শহরে চলে গেছে। কারণ শহরে ক্রিকেটারদের দাম রয়েছে আলাদা। মণিরও উচিত শহরে গিয়ে মন্ডাকে খুঁজে বের করা। এভাবে এগিয়ে যাবে নাটকের গল্প।

বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল দীপ্ত টিভিতে নতুন এই ধারবাহিকটি খুব শীঘ্রই প্রচারে আসবে বলে জানা গেছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...