The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

টিউমার ভেবে অপারেশন করে বের হলো ‘সেদ্ধ ডিম’!

আসলে দেহের অঙ্গ বৃদ্ধি পেয়েই তা সেদ্ধ ডিমের আকার ধারণ করেছিলো

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ একজন রোগির টিউমার হয়েছে ভেবে অপারেশন পর হতবাক হয়ে গেলেন চিকিৎসকরা। রোগীর পেট হতে বের হলো আস্ত একটি ‘সেদ্ধ ডিম’!

টিউমার ভেবে অপারেশন করে বের হলো ‘সেদ্ধ ডিম’! 1

আনন্দবাজার পত্রিকার এক খবরে বলা হয়, সম্প্রতি ভারতের আর জি কর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এমন একটি ঘটনা ঘটেছে।

ওই হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আসলে দেহের অঙ্গ বৃদ্ধি পেয়েই তা সেদ্ধ ডিমের আকার ধারণ করেছিলো। ভারতে এমন ধরনের ঘটনা আগে কখনও ঘটেনি। চিকিৎসকদের পরিভাষায় এই রোগের নাম ‘পেরিটোনিয়াল লুজ বডিস কিংবা পেরিটোনিয়াল মাইস’।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, মাস কয়েক ধরেই তলপেটের ব্যথায় ভুগছিলেন দমদমের ৫২ বছরের জনৈক ব্যক্তি। সেই সঙ্গে প্রস্রাবের সময় জ্বালা পোড়া ভাবও ছিল তার। তবে কিছুতেই সেই ব্যথা না কমায় সম্প্রতি আর জি কর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।

প্রাথমিকভাবে চিকিৎসকরা মনে করেন যে, মূত্রথলিতে সংক্রমণের জন্য ওই ব্যক্তির তলপেটে ব্যথাও হতে পারে। পরে তার আল্ট্রাসোনোগ্রাফি করা হয়। সেই রিপোর্ট দেখে চিকিৎসকরা মনে করেন, মূত্রথলিতে টিউমার থাকার কারণে তলপেটে এমন ব্যথা হচ্ছে। সিটি স্ক্যানও করানো হয়। সেই রিপোর্টেও মূত্রথলির পাশাপাশি টিউমারের অবস্থান খাদ্যনালীতে হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়।

চিকিৎসকরা শেষ পর্যন্ত অপারেশন করার সিদ্ধান্ত নেন। তবে অপারেশনের পর হতবাক হয়ে যান উপস্থিত চিকিৎসকরা। রোগীর তলপেট হতে বার হয়েছে প্রায় পাঁচ সেন্টিমিটার লম্বা একটি ‘সেদ্ধ ডিম’।

চিকিৎসকরা বলেছেন, দেহতন্তুর সঙ্গে চর্বি-ক্যালসিয়াম জমাট বেঁধে ডিমের মতোই আকার ধারণ করেছে। ডিমের মতো অংশটির পেছন দিকটা ইঁদুরের মতো হওয়ায় বাংলায় একে ‘পেটের মধ্যে ইঁদুর’ও বলা যেতে পারে বলে জানান চিকিৎ়সকরা। সাধারণত, পুরুষদের ক্ষেত্রে অ্যাপেন্ডিক্স হলে বা বৃহদন্ত্রের গা থেকে মাংস খসে এই ধরনের ডিমের মতো আকার নিতে পারে। অপরদিকে, নারীদের ক্ষেত্রে জরায়ুর গা হতে ছোট টিউমার খসে এ ধরনের টিউমার সৃষ্টি হতে পারে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...