The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ওজু ভাঙ্গা নিয়ে ধারণাসমূহ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমরা সবাই জানি নামাজ পালনের জন্য ওজু করা ফরজ। ওজু ছাড়া নামাজের কল্পনাই করা যাবে না। এই অজু নিয়ে আমাদের মধ্যে কিছু ভুল ধারণা রয়েছে। আজ এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা হবে।

ওজু ভাঙ্গা নিয়ে ধারণাসমূহ 1

মহান আল্লাহ তাআলা বান্দার নামাজ আদায়ের জন্য ওজুকে ফরজ করেছেন। তাই বিনা ওজুতে ফরজ ইবাদত করা প্রকৃত পক্ষে পাপের কাজ। তবে বেশ কিছু কারণে ওজু ভঙ্গ হয় বা নষ্ট হলেও ওজু ভাঙ্গা নিয়ে কিছু প্রচলিত ভুল ধারণা রয়েই গেছে।

এর মধ্যে অন্যতম হলো, ওজু করার সময় বা ওজু করার পর হাঁটুর ওপর কাপড় উঠলে ওজু ভেঙ্গে যাবে। মানুষের মনে জন্ম নেওয়া বা প্রচলিত এই ধারণাটা কী আসলেও ঠিক?

আসলে ওজুর সঙ্গে সতর (নারী ও পুরুষের শরীরের যেসব অংশ সবসময়ই আবৃত রাখা ফরয) ঢাকার কোনোই সম্পর্ক নেই। সতর খোলা রেখে আপনি অজু করলেও আপনার ওজু হয়ে যাবে। এতে অজুর কোনো রকম ব্যাঘাত ঘটবে না।

সতরের সঙ্গে ওজুর কোনোই সম্পর্ক নেই। ওজু হওয়া কিংবা অজু না হওয়ার সম্পর্ক ফরজের সঙ্গে। সতর খোলা রাখা এই কারণগুলোর কোনোটাতেই পড়ে না। তাই হাঁটুর ওপরে কাপড় থাকায় ওজু নষ্ট হওয়ার কোনো ভয় নেই।

এই বিষয়ে আল্লাহ্‌ তা’আলার বলেন, (ওহে যারা ঈমান এনেছ!) তোমরা যখন সালাতের জন্য দাঁড়াতে চাও তখন ধৌত করে নিবে নিজেদের মুখমণ্ডল ও হাত কনুই পর্যন্ত, আর মাস্‌হ করে নিবে নিজেদের মস্তক ও ধৌত করে নিবে নিজেদের পা গ্রন্থি পর্যন্ত। (সূরা আল-মায়িদাহ্‌ ৫/৬)

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...