The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

আশুলিয়ার দৃষ্টিনন্দন পিকনিক ও শুটিং স্পট নেভারল্যান্ড

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ রাজধানী ঢাকার মিরপুর ১-এর চটবাড়ী এলাকাস্থ আশুলিয়া বেড়িবাঁধ সড়কে প্রায় ১২ একর জমির উপর একটি দৃষ্টিনন্দন পিকনিক ও শুটিং স্পট নেভারল্যান্ড।

আশুলিয়ার দৃষ্টিনন্দন পিকনিক ও শুটিং স্পট নেভারল্যান্ড 1

রাজধানী ঢাকার মধ্যে বৃক্ষের সুশীতল ছায়াঘেরা নদী তীরের মুক্ত বাতাস এবং কোলাহলহীন পরিবেশে পরিবার বা বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে অবসর সময় কাটানোর জন্য নেভারল্যান্ড পিকনিক ও শুটিং স্পট একটি সেরা বিনোদন কেন্দ্রের নাম।

তামান্না ওয়ার্ল্ড ফ্যামিলি পার্ক-এর কাছেই অবস্থিত তুরাগ নদী দিয়ে ঘেরা সাজানো গুছানো নেভারল্যান্ড পিকনিক স্পটে রয়েছে বাংলা ও চাইনিজ খাবারের রেস্টুরেন্ট, বাচ্চাদের জন্য প্লে জোন, কার পার্কিং ও নৌ-ভ্রমণের ব্যবস্থাও। এছাড়াও বেড়িবাঁধ ধরে নেভারল্যান্ড পার্কে যাওয়ার রাস্তাটি খুবই উপভোগ্য একটি স্থান। প্রতিদিন বিকেল বেলা ও অন্যান্য ছুটির দিনগুলোতে নেভারল্যান্ড ও বেড়িবাঁধ এলাকায় অনেক বিনোদন প্রেমীদের আগমণ ঘটে।

নেভারল্যান্ড পিকনিক স্পট প্রতিদিন সকাল ৯ টা হতে রাত ৯ টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকে।

নেভারল্যান্ড পিকনিক স্পটে প্রবেশ করার জন্য কোনো প্রকার প্রবেশ ফি প্রদান করতে হয় না। তবে তুরাগ নদীতে ১ ঘন্টার জন্য ময়ূরপঙ্খী নৌকায় চড়তে হলে জনপ্রতি ১০০ টাকা দিতে হয়। নেভারল্যান্ডের রেস্টুরেন্টে বাংলা এবং চাইনিজ খাবার খেতে ১০০ টাকা হতে ৫০০ টাকা আপনাকে ব্যয় করতে হবে। এখানে বিভিন্ন সেট মেন্যুর সর্বনিন্ম মূল্য হলো ২২০ টাকা।

নেভারল্যান্ড যাওয়ার জন্য যোগাযোগ মোবাইল: 01635-035262, 01987-121383, 01906-309816,
01711-737560, 01970-092101, ফেসবুক: www.facebook.com/DhakaScape/ ওয়েবসাইট: www.findlocality.com/neverlandtheurbanescape

তথ্যসূত্র: https://vromonguide.com

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের

Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...