The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

একজন ভালো মানুষ হতে হলে যে বৈশিষ্ট্য থাকতে হবে

businessman looking on cliff with natural sky daylight cloudscape background

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ভালো মানুষ হতে হলে একজন মানুষের অনেক বৈশিষ্ট্য থাকা প্রয়োজন। আজ আলোচনা করা হবে একজন ভালো মানুষ হতে চাইলে কী কী গুণাবলি বা বৈশিষ্ট্য থাকতে হবে।

একজন ভালো মানুষ হতে হলে যে বৈশিষ্ট্য থাকতে হবে 1

ভালো মানুষ হতে হলে একজন মানুষের অনেক বৈশিষ্ট্য থাকা প্রয়োজন। আজ আলোচনা করা হবে একজন ভালো মানুষ হতে চাইলে কী কী গুণাবলি বা বৈশিষ্ট্য থাকতে হবে।

১। এই পৃথিবীর সকল প্রাণী, উদ্ভিদ, মাটি, মা, মানুষকে ভালবাসতে হবে। জাতি ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষকেই স্বজন ভাবতে পারলে, স্বজনের মতো করে আদর, আপ্যায়ন করতে পারলে ভালো মানুষ হওয়া সম্ভব হবে। শুধু মানুষ নয়, অন্যান্য প্রাণী এবং উদ্ভিদকেও সম্মান এবং মর্যাদা দিতে হবে। তবে হিংস্র ও ক্ষতিকর প্রাণী এবং উদ্ভিদ থেকে নিজ দায়িত্বে অবশ্যই নিরাপদ থাকতে হবে।

# কখনও কারও ক্ষতি করা যাবে না।

# নিজেকে সত্যবাদী ও সত্যনিষ্ঠ হতে হবে।

# অহংকার মুক্ত থাকতে হবে।

# ক্ষমাশীল হতে হবে।

# বিনয়ী হতে হবে।

# বিবেকবান হতে হবে।

# জ্ঞানী হতে হবে।

আরও কিছু সাধারণ প্রশ্ন। একজন ভালো মানুষের কী কী গুণ থাকা দরকার? ভালো মানুষের সংজ্ঞাই বা কী? কী কী গুণাবলী থাকলে আপনি কাওকে একজন ভালো মানুষ বলবেন? ভালো মানুষের গুণগুলো আসলে কী? ভালো মানুষ হওয়ার সহজ উপায়ই বা কী?
একজন ভাল মানুষের কী কী গুণাবলী থাকা দরকার?

একজন ভালো মানুষ কখনও প্রতিশোধকামী নন, তিনি সহজেই ক্ষমা করে দিতে পারেন। তিনি তাকেও ক্ষমা করে দিতে পারেন, যে তাকে একদিন অপমান করেছেন। মনের মধ্যেও কোনো অহংকার নেই, তবে আপনি তার ব্যক্তিত্ব এর ঝাঁজও অনুভব করবেন। আপনি কারও কোনো ক্ষতি করেন না এবং অসৎ পথ অবলম্বনও করেন না। আপনি অবশ্যই অতিথি পরায়ন এবং তার থেকেও নিচের দিকের মানুষের সঙ্গে সন্মানপূর্ণ ব্যবহারও করেন।

প্রথমত ‘ভালো মানুষ’ বিষয়টা একটু আপেক্ষিক বিষয়। ভালোর কোনো শেষ নেই। এক সময় মনে হতে পারে মানুষ হিসাবে সার্থকতা, অন্তত একজন মানুষের জন্য কিছু করা। অন্যরা আপনার থেকে নিরাপদ থাকতে পারলেই আমার কাছে আপনি ‘ভালো মানুষ’।

ভালো মানুষ হতে হলে তার আরও কিছু গুণাবলি থাকা একান্ত কাম্য। আর তা হলো:

# মোটেও রাগ না থাকা।

# মিথ্যা কথা না বলা।

# কখনও অন্যায় না করা।

# সকলের সঙ্গেই ভালো ব্যবহার করা।

# ধর্মীয় অনুশাসন মেনে জীবন চালানো।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...