The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

শ্রীলংকাকে পরাজিত করে সিরিজ জয়ে সুপার লিগের শীর্ষে বাংলাদেশ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শ্রীলংকার বিপক্ষে বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচ জিতেই সিরিজ জয়ের আশায় ছিলো। তবে আজ বাংলাদেশ ক্রিকেট দল সফল হলো। শ্রীলংকাকে পরাজিত করে সিরিজ জয়ে সুপার লিগের শীর্ষে বাংলাদেশ।

শ্রীলংকাকে পরাজিত করে সিরিজ জয়ে সুপার লিগের শীর্ষে বাংলাদেশ 1

এক কথায় বলা যায়, দুঃসময়ের বলয়ে ছিল বাংলাদেশের ক্রিকেট। এবার দেখলো অনন্য এক সাফল্যের সূর্যমুখ। টানা ১০ ম্যাচে জয়বিহীন থেকে সিরিজ শুরু করা দল দুই ম্যাচেই সিরিজে হারিয়ে দিল সফররত শ্রীলঙ্কাকে। ধরা দিলো লঙ্কানদের বিপক্ষে প্রথম সিরিজ জয়ের স্বাদ। মুশফিকুর রহিমের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে গড়ে ওঠা এই জয়ের সৌধ বাংলাদেশকে পৌঁছে দিলো আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগের পয়েন্ট তালিকার একেবারে চূড়ায়।

ওয়ানডেতে প্রথম ম্যাচে তবু লড়াই জমেছিল বেশ। সেই ম্যাচের চেয়ে কম পুঁজি নিয়েও দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বাংলাদেশ জিতলো অনেক বড় ব্যবধানে। যদিও বৃষ্টির কারণে ১০৩ রানের এই জয়ে নিশ্চিত হলো সিরিজ জয়। তারপরও একের পর এক ইউকেট হারিয়ে শ্রীলংকার অবস্থা ছিলো একেবারেই শোচনীয়।

ম্যাচের শুরুতেই তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসানকে হারানো দলকে অসাধারণ এক ইনিংস উপহার দেন মুশফিক। এরপর মেহেদী হাসান মিরাজ এবং মুস্তাফিজুর রহমানের দারুণ বোলিংয়ে দাঁড়াতেই পারেনি লঙ্কান ব্যাটিং।

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে আজ (মঙ্গলবার) টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশ অলআউট হয় ২৪৬ রানে। বাংলাদেশের দেওয়া ২৪৭ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে শ্রীলংকা ৩৮ ওভারে ৯ উইকেটে ১২৬ রান তোলার পর বৃষ্টিতে বন্ধ হয়ে যায় ম্যাচ। পরে তাদের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৪০ ওভারে ২৪৫। বাকি দুই ওভারে তারা যোগ করতে পারে মাত্র ১৫ রান।

এদিকে বাংলাদেশের এই জয়ে অভিনন্দন জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

বাংলাদেশ : ৪৮.১ ওভারে ২৪৬ (তামিম ১৩, লিটন ২৫, সাকিব ০, মুশফিক ১২৫, মোসাদ্দেক ১০, মাহমুদউল্লাহ ৪১, আফিফ ১০, মিরাজ ০, সাইফ ১১, শরিফুল ০, মুস্তাফিজ ০*; উদানা ৯-০-৪৯-২, চামিরা ৯.১-২-৪৪-৩, হাসারাঙ্গা ১০-১-৩৩-১, শানাকা ৭-০-৩৮-০, সান্দাক্যান ১০-০-৫৪-৩, ধনাঞ্জয়া ৩-০-২৩-০)।

শ্রীলঙ্কা : (লক্ষ্য ৪০ ওভারে ২৪৫) ৪০ ওভারে ১৪১/৯ (গুনাথিলাকা ২৪, কুসল পেরেরা ১৪, নিসানকা ২০, কুসল মেন্ডিস ১৫, ধনাঞ্জয়া ১০, বান্দারা ১৫, শানাকা ১১, হাসারাঙ্গা ৬, উদানা ১৭*, সান্দাক্যান ৪, চামিরা ৪*; মিরাজ ১০-০-২৮-৩, শরিফুল ৬-০-৩০-১, তাসকিন ৮-০-২৭-০, মুস্তাফিজ ৬-১-১৬-৩, সাকিব ৯-০-৩৮-২, মোসাদ্দেক ১-০-২-০)।

ফলাফল : ডিএলএস পদ্ধতিতে বাংলাদেশ ১০৩ রানে জয়ী।

সিরিজ : ৩ ম্যাচ সিরিজে বাংলাদেশ ২-০তে এগিয়ে।

ম্যান অব দা ম্যাচ : মুশফিকুর রহিম।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...