The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু হোটেল উন্মুক্ত হলো!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সাংহাই টাওয়ার হলো চীনের উচ্চতম অট্টালিকা। এবার পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু এই হোটেলটি উন্মুক্ত করা হলো! পুডং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হতে মাত্র ৮ মিনিটের আরামদায়ক ম্যাগলেভ ট্রেন যাত্রার মাধ্যমে এই অট্টালিকায় পৌঁছানো যাবে।

পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু হোটেল উন্মুক্ত হলো! 1

সাংহাই টাওয়ার হলো চীনের উচ্চতম অট্টালিকা। এর উচ্চতা ৬৩২ মিটার (প্রায় দুই হাজার ফুট। এই অট্টালিকার উপরের তলাগুলো নিয়ে তৈরি করা হয়েছে জে হোটেল সাংহাই টাওয়ার। এটি বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু হোটেল বলে দাবি করেছে হোটেলটির কর্তৃপক্ষ।

শুধুমাত্র উচ্চতম হোটেলের দাবি করেই তারা থেমে থাকেননি, এই হোটেলটিতে রয়েছে আরাম-আয়েশের সব ধরনের আয়োজন।

পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু হোটেলের দম্ভ ছাড়াও জে হোটেলটি আসলে দেখতে কেমন? এতে কক্ষই রয়েছে ১৬৫টি, যার মধ্যে রয়েছে ৩৪টি স্যুইট। প্রতিটি কক্ষের সঙ্গেই ইন্ডোর সুইমিং পুল, হার্মিস অ্যান্ড ডিপ্টিকের টয়লেট্রিজ, ম্যাগনোলিয়া পাপড়ি আকারের বাথটাব, আরও রয়েঝে স্পা।

এই হোটেলটির ৪টি স্যুইটের আকার ৩৮০ বর্গমিটার করে। বেডরুমের পাশাপাশি এসব স্যুইটে পার্লার, পড়াশোনার ঘর, রান্নাঘর, সাইকোথেরাপি এরিয়া ও কাপড় বদলানোর জন্য পৃখক কক্ষও রয়েছে। হোটেলটির সবচেয়ে কমদামী কক্ষে প্রতি রাত কাটাত খরচ হবে প্রায় ৫৫৭ মার্কিন ডলার যা বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ৫০ হাজার টাকার মতো ।

জে হোটেলের মালিক হলো জিন জিয়াং ইন্টারন্যাশনাল। এটি চীনের অন্যতম বড় একটি হোটেল ও ট্যুরিজম গ্রুপ। তাছাড়াও এটি রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন অ্যাসেট সুপারভিশন অ্যান্ড অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কমিশনেরও অংশ।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...