The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

redporn sex videos porn movies black cock girl in blue bikini blowjobs in pov and wanks off.

বেসিসের গোলটেবিল বৈঠক: আইসিটি শিল্পের দক্ষ জনশক্তি তৈরিতে সরকারি-বেসরকারি যৌথ উদ্যোগের প্রস্তাবনা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস বেসিস ‘তথ্যপ্রযুক্তি দক্ষতা উন্নয়ন: চ্যালেঞ্জ ও সমাধান’ শীর্ষক একটি গোলটেবিল বৈঠক আয়োজন করা হয়।

বেসিসের গোলটেবিল বৈঠক: আইসিটি শিল্পের দক্ষ জনশক্তি তৈরিতে সরকারি-বেসরকারি যৌথ উদ্যোগের প্রস্তাবনা 1

৩ ডিসেম্বর বেসিস অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত ওই গোলটেবিল বৈঠকের সভাপতিত্ব করেন বেসিস সভাপতি রাসেল টি আহমেদ।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বেসিসের সহ-সভাপতি ফাহিম আহমেদ (অর্থ) ও এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনা করেন বেসিসের সাবেক সভাপতি একেএম ফাহিম মাসরুর।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য অধ্যাপক ড. সাজ্জাদ হোসেন, আইসিটি বিভাগের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ মোস্তফা কামাল, গ্রাফিক পিপলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইমতিয়াজ ইলাহী, ব্রেইন স্টেশন ২৩-এর চীফ টেকনোলজি অফিসার রাইসুল কাবির, সিকিউর লিংক সার্ভিসেস বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জুলিয়ান অ্যান্ড্রিন ওয়েবার, ডিভাইন আইটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইকবাল আহমেদ ফখরুল হাসানসহ আরও অনেকেই।

বেসিসের সাবেক সভাপতি এ কে এম ফাহিম মাসরুর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনায় চ্যালেঞ্জ হিসেবে বলেছেন, বেশিরভাগ কোম্পানিই সহজেই নিয়োগযোগ্য ‘অভিজ্ঞ’ মানবসম্পদ খোঁজে। যেহেতু কোম্পানিগুলোর গড় আকার ছোট, তারা নতুন স্নাতকদের প্রশিক্ষণ দিতে ও তাদের নিয়োগযোগ্য করে তুলতে প্রস্তুত নয়।

সেক্ষেত্রে তিনি বেশ কয়েকটি সমাধানের কথা উল্লেখ করেছেন, যেমন নতুন স্নাতক নিয়োগের জন্য এসএমই আইটি কোম্পানিগুলোকে সহায়তা করার জন্য একটি বিশেষ তহবিল (সরকার এবং উন্নয়ন সংস্থা দ্বারা সমর্থিত) তৈরি করা যেতে পারে। নতুন স্নাতকদের নিয়োগের জন্য বড় আইটি কোম্পানিগুলোর জন্য ট্যাক্স ও অন্যান্য প্রণোদনা প্রদান করা যেতে পারে। সকল বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে বাণিজ্যিক গবেষণা এবং উন্নয়ন ল্যাব স্থাপন করা যেতে পারে। বেসরকারি সংস্থাগুলো তাদের কাজগুলোকে তাদের সঙ্গে সহযোগিতা করবে। জুনিয়র স্তরের কর্মচারী ও নতুন স্নাতকদের জন্য শিল্পকেন্দ্রীক স্বল্পমেয়াদী (১-৩ মাস) প্রশিক্ষণ প্রোগ্রাম (তাদের সদস্য কোম্পানিগুলোর সঙ্গে অংশীদারিত্বে) ব্যবস্থা করা যেতে পারে।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য অধ্যাপক ড. সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন, “আমাদের দেশে শিক্ষার্থীরা যথেষ্টই মেধাবী, এখানে শুধু মাত্র দরকার সমন্বয়ের। ইউনিভার্সিটি, প্রশিক্ষণ বিশেষজ্ঞ ও সরকার প্রত্যেকে প্রত্যেকের জায়গা থেকে শুধু নিজ নিজ কাজ সকলের সঙ্গে সমন্বয় করে করতে হবে। তাহলেই আমরা আমাদের কাঙ্ক্ষিত ফল তথা দক্ষ মানবসম্পদ পেতে পারি। এই ক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখতে পারে। আমাদের মেধাবী যুবসমাজকে সুযোগ করে দিতে হবে। তারা সবাই কাজ করতে চায় তবে কোথাও গ্যাপ থেকে যাচ্ছে, এই গ্যাপ খুঁজে বের করে তার সমাধান করতে পারলেই আমরা কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবো বলে আশা করছি।”

আইসিটি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ মোস্তফা কামাল, বলেছেন, “আমরা শুধুমাত্র প্লাটফর্ম তৈরি করছি। সেই প্লাটফর্মে কাজ করতে হবে সবাইকেই। যে যায় অবস্থান হতে প্রচুর পরিমাণে কাজ করছে। এই কাজগুলোকে এক লাইনে এনে একত্রে করতে হবে। দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করার ক্ষেত্রে আমাদের পক্ষ হতে সবসময় সকল ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবিটা খুবই যৌক্তিক ও আমরা এই বিষয়ে খুবই ইতিবাচক।

বিশ্ববিদ্যালয়কে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তোলার ক্ষেত্রে যেনো শিক্ষার্থীদের ভিত্তি আরও মজবুত হয়।”

বেসিস সভাপতি রাসেল টি আহমেদ বলেছেন, “১২ বছরের অভিজ্ঞতা রয়েছে বেসিস ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট (বিআইটিএম)-এর। যার মাধ্যমে ৯৫% হতে ৯৯% প্রশিক্ষণপ্রাপ্তরা বিভিন্ন জায়গায় কাজ করছে। বিআইটিএমকে ইউজিসি দক্ষ মানবসম্পদ গড়ার ক্ষেত্রে অন্যতম ভালো প্রতিষ্ঠান হিবেসে গণ্য করতে পারে ও বিআইটিএমকে ইউনিভার্সিটির সংযোগ করতে পারে যেনো বিআইটিএম ও বেসিস শিল্প প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সমন্বয় করতে পারে। এর মাধ্যমে ইউজিসি দক্ষ মানবসম্পদ গড়ার ক্ষেত্রে সুযোগ তৈরি করে দিতে পারে।

মার্কেটের চাহিদা অনুযায়ী এখান থেকেই দক্ষ মানবসম্পদ পাওয়া যাবে। স্থানীয় ও বৈদেশিক বাজারের ক্রমবর্ধমানশীল তথ্যপ্রযুক্তি খাতের জন্য প্রয়োজনীয় দক্ষ মানবসম্পদ গড়তে না পারলে ডিজিটালাইশন এবং অটোমেশন যেমন বাধাগ্রস্থ হবে ঠিক তেমনি আন্তর্জাতিক বাজারেও বাংলাদেশের টিকে থাকা কঠিন হয়ে পড়বে। সে ক্ষেত্রে বাংলাদেশের কাঙ্ক্ষিত রপ্তানি লক্ষমাত্রা অর্জন সম্ভব হবে না।”

তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষ মানবসম্পদ উন্নয়নের ক্ষেত্রে অনুপস্থিত যোগসূত্র খুঁজতে আয়োজিত এই গোলটেবিল আলোচনায় শিক্ষাবিদরা বলেন, তারা তাদের শিক্ষার্থীদেরকে তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষতা বিকাশের ক্ষেত্রে সঠিক পদ্ধতিতেই শিক্ষা প্রদান করছেন। একইভাবে বিভিন্ন তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ বিশেষজ্ঞরা বলেন যে, তারা তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে সব ধরনের প্রশিক্ষণ প্রদান করেন ও সরকারের পক্ষ থেকে, সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলেন, সামগ্রিকভাবে তারা এই সমস্ত ব্যাপারগুলো নিয়ে কাজ করছেন। এক্ষেত্রে উপযুক্ত দক্ষ মানব সম্পদ পেতে কোন যোগসূত্রটি অনুপস্থিত সেটি অনুসন্ধান করতে এই গোলটেবিল আলোচনার অবতারণা হয়েছে। খবর সংবাদ বিজ্ঞপ্তির।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকার চেষ্টা করি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের কাপড়ের মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...
sex không che
mms desi
wwwxxx