চিত্র-বিচিত্র: নতুন সপ্তাশ্চর্যের একটি: ক্রাইস্ট দ্য রিডিমার

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ পৃথিবীতে আশ্চর্যজনক অনেক জিনিসই রয়েছে। এইসব সপ্তাশ্চর্যের একটি হলো ক্রাইস্ট দ্য রিডিমার। এটি সম্পর্কে অনেকেই এখনও জানেন না।

Christ the Redeemer

অনেকেই প্রশ্ন করতে পারেন এই ক্রাইস্ট দ্য রিডিমার আসলে কি? হ্যা ক্রাইস্ট দ্য রিডিমার (Christ the Redeemer) নতুন ঘোষিত সপ্তাশ্চর্যের একটি। আসলে এটি বাস্তবে যিশুর একটি বিশাল মূর্তি।

যিশুর এই বিশাল মূর্তিটি রয়েছে ব্রাজিলের দক্ষিণপূর্ব শহর রিও ডি জেনিরোতে। পাহাড়ের চূড়ায় দুই হাত প্রসারিত করে দাঁড়িয়ে আছেন যিশু। যে পাহাড়টির উপর এর অবস্থান তার নাম কর্কোভাদো (Corcovado)। পাহাড়টি উচ্চতা ৭১৩ মিটার বা ২৩৪০ ফুট। যেতে হয় সড়কপথে নয়তো কেবল রেলে চড়ে। এই মূর্তিটি তৈরি করেছেন ফরাসি ভাস্কর পল ল্যান্ডোস্কি।


View Larger Map

১৯২১ সালে তাকে মূর্তিটি তৈরির দায়িত্ব দেয়া হয়। উদ্দেশ্য পর্তুগালের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভের প্রথম শতবার্ষিকী উদযাপন। এই মূর্তিটি তৈরি করতে সময় লাগে ১০ বছর। ১৯৩১ সালে শেষ হয় এর নির্মাণকাজ। গ্রানাইটের তৈরি এই মূর্তিটি ৩০ মিটার বা ১০০ ফুট উঁচু। যে বেদীটির উপর মূর্তিটি স্থাপন করা হয় তারই উচ্চতা ৬ মিটার বা ২০ ফুট। মূর্তিটি এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যেন যিশু তার দুই হাত প্রসারিত করে শহরটিকে আলিঙ্গন করছেন। পাহাড় আর পানি দিয়ে ঘেরা রিও ডি জেনিরো শহরের সবচাইতে দর্শনীয় জায়গাগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। যিশুখ্রিস্ট যেমন খ্রিস্টধর্মের প্রতীক, এই মূর্তিটিও তেমনি রিও এবং ব্রাজিলের প্রতীক হয়ে দাড়িয়ে আছে। বহু পর্যটক এখানে আসেন যিশুর এই মূর্তিটি দেখতে। সবাই আশ্চর্য বোধ করেন। কারণ বিশাল আকারের এমন মূর্তি সচরাচর কেও দেখেনি। তথ্যসূত্র: অনলাইন।

Advertisements
Loading...