চোখের সমস্যা ও তার প্রতিকার

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ আজকে স্বাস্থ্য ট্রিপস্‌-এ চোখের বিষয়ে কিছু আলোচনা করা হবে। কারণ চোখ আমাদের মূল্যবান সম্পদ। এই মূল্যবান সম্পদের রক্ষাবেক্ষণের দায়িত্ব আমাদের সকলের। সময় থাকতে চোখের চিকিৎসা না করলে কত ক্ষতি হতে পারে তা আমরা কখনও চিন্তাও করিনা।

Wearing Glasses

আজকে চোখের বেশ কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হবে। আশা করি এগুলো আমাদের পাঠকদের বেশ উপকারে আসবে। আমরা চোখের কোন সমস্যা দেখলেই ভাবি চোখ নষ্ট হয়ে গেছে। চোখের কোন সমস্যা হলে চশমা নেওয়ার জন্য আমরা অনেক সময় উদগ্রিব হয়ে পড়ি। আসলে কি চশমা সব সময় চশমা লাগে? এ প্রশ্ন অনেকের রয়েছে। এ বিষয়গুলো নিয়েই আলোচনা করা হবে।

ছোট করে অথবা বড় করে দেখা

দেখবেন আপনার বাচ্চা যদি কখনও চোখ কুঁচকে ছোট করে কিছু দেখে অথবা চোখ বড় বড় করে দেখার চেষ্টা করে তাহলে বুঝবেন তার চশমা প্রয়োজন। আপনার ও যদি চোখ ছোট করে দেখার প্রবণতা থাকে তাহলে শীঘ্রই চোখের ডাক্তার দেখানো দরকার।

দূরের কিছু দেখতে সমস্যা

যদি আপনি খেলা দেখছেন কিন্তু সোফায় বসে খেলার স্কোর দেখতে পাচ্ছেন না। অথবা বিল বোর্ডের ছোট লেখাগুলো ঝাপসা লাগছে। সেক্ষেত্রে আপনার বুঝে নিতে হবে আপনার চশমা প্রয়োজন। দূরের কোনো লেখা বা দূরের মানুষের চেহারা ঝাপসা দেখলে চোখের ডাক্তারের কাছে চোখ পরীক্ষা করিয়ে নিন।

চোখের খুব দূরে রেখে পড়া

খুব স্বাভাবিক দূরত্বে বই রেখে যদি পড়তে অসুবিধা হয় এবং এক্ষেত্রে চোখের বেশি কাছে নিয়ে যদি পড়তে হয় তাহলে বুঝতে হবে আপনার দৃষ্টিশক্তি কমে গেছে। আবার স্বাভাবিক দূরত্বের চাইতে বেশি দূরে যদি পরিষ্কার দেখায় তাহলেও আপনার পজিটিভ পাওয়ারের চশমার প্রয়োজন হতে পারে। তাই বই বা পত্রিকা পড়ার সময় কাছের বা দূরের সমস্যা থাকলে ডাক্তারের কাছে চোখ দেখিয়ে নেয়া জরুরি। এক্ষেত্রে আপনার অবহেলা করা মোটেও ঠিক হবে না।

চোখের কান্তি অনুভব করা

অনেক সময় দৃষ্টিশক্তি কমে গেলে চোখকে বেশ কষ্ট করে দেখতে হয়। ফলে চোখ খুব তাড়াতাড়ি ক্লান্ত হয়ে পড়ে। তাই কিছুক্ষণ পড়াশোনা অথবা কম্পিউটারে কাজ করার পরেই যদি চোখকে ক্লান্ত মনে হয় তাহলেও একবার চোখের ডাক্তার দেখানো দরকার।

বার বার মাথা ব্যথা সমস্যা

দৃষ্টি সমস্যার অন্যতম একটি উপসর্গ হলো বার বার মাথা ব্যথা করা। বেশিক্ষণ পড়াশোনা করলে অথবা অনেকক্ষণ কম্পিউটারে কাজ করার পর যদি মাথা ব্যথা করে তাহলে চশমা প্রয়োজন। অবশ্য সব ক্ষেত্রেই চশমা লাগবে তা নয়। অনেক সময় ট্যাবলেট খেয়েও এ সমস্যা দূর করা যায়। তাই এই ধরণের উপসর্গ দেখা দিলে ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হবে।

এমনিভাবে চোখের যে কোন সমস্যা হলে ঘরে বসে সে সমস্যার নিয়ে হাজারও চিন্তা না করে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া জরুরি। কারণ ছোট সমস্যাও একদিন বড় আকার ধারণ করতে পারে। এমন অনেক ঘটনা আমাদের সমাজে রয়েছে। খুব ছোট কোন সমস্যা ডাক্তার না দেখানোর কারণে এক সময় বড় সমস্যায় পরিণত হয়। তাই সময় থাকতে চোখের কোন সমস্যা দেখলে কাল বিলম্ব না করে একজন চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞকে দেখান। তাহলে ছোট সমস্যা ছোট থাকতেই সমাধান হবে। তথ্য: অনলাইন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...