The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

পড়াশোনায় নিজের মনোযোগ ধরে রাখতে যা করতে পারেন

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ পড়তে বসার পর আর পড়তে ইচ্ছে করছে না। এলোমেলো মন কোথায় হারিয়ে যাচ্ছে বুঝতেই পারছেন না। কমবেশি প্রায় সকল শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে এই সমস্যাটি হয়ে থাকে। এই সমস্যার ফলে হাল ছেড়েদিলে চলবে না কেননা আপনাকে তো পাশ করতেই হবে। তবে চলুন দেখে নেওয়া যাক কিভাবে আপনি পড়ায় মন বসাতে পারেন?


Student-Studying-680x450

১. লক্ষ্য ঠিক রাখুন

আপনার লক্ষ্য নিশ্চয়ই ঠিক করা আছে। তবে এই ক্ষেত্রে অদূর ভবিষ্যতের লক্ষ্যের দিকে নজর না দিয়ে নিকটবর্তী লক্ষ্য নিয়ে ভাবুন। যেমন, এইবার আপনাকে কয়টি বিষয়ে খুব ভালো করতে হবে কিংবা কোন কোন বিষয়ে কেমন নাম্বার তুলতে চাচ্ছেন। এতে করে আপনি পড়ার একটি স্পৃহা পাবেন নিজের ভেতর।

২. সময় সচেতন হউন

সময়ের প্রতি যত্নশীল হউন। কোন বিষয়ের জন্য কত সময় চাচ্ছেন তা ভাগ করে নিন। একথা তো সকলেই জানে যে, সময় কারো জন্য বসে থাকে না। তাই যে বিষয়ের জন্য যত সময় নির্বাচন করেছেন। ঠিক তত সময়ে তা শেষ করার চেষ্টা করুন। এতে করে আপনার মন দিগ্বিদিক ছুটে বেড়াবে না।

৩. পেটের ক্ষুধা নিবারণ করুন

পেটে ক্ষুধা থাকলে পড়ায় মন বসে না তাই পেটের ক্ষুধা নিবারণ করুন। তবে ভরপেট খাবেন না এতে করে শরীরের মধ্যে অলসতা চলে আসবে। যা আপনার পড়ার গতিকে আরো ক্ষতিগ্রস্ত করবে।

৪. কিছুক্ষণ ঘুমিয়ে নিন

ক্যাটন্যাপ বলে ইংরেজিতে একটি কথা প্রচলিত রয়েছে। এর অর্থ হলো বিড়ালের মতো ঘুম। বিড়াল কিছুটা সময় পরপর হালকা একটি ঘুম দেয় একে বলা হয় ক্যাটন্যাপ। নিউরোবিজ্ঞানীরা বলেন, ক্যাটন্যাপ মানুষের মস্তিষ্কের কার্যকারিতার জন্য বেশ ভালো। পড়ায় মন এলোমেলো হয়ে গেলে একটি ছোট ঘুম দিতে পারেন।

৫. মেডিটেশন করুন

মেডিটেশন মনোযোগ ধরে রাখার সবচেয়ে ভালো একটি উপায়। এই বিষয়টির সারাবিশ্বে রয়েছে অনেক জনপ্রিয়তা। আপনিও আপনার মনোযোগকে একীভূত করতে এটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন। মেডিটেশনের ফলে মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বৃদ্ধি পায়।

এছাড়াও মিষ্টিজাতীয় খাবার খেতে পারেন। এটি মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে থাকে। নিজের পড়াশোনার ক্ষেত্রে এই কৌশলগুলো অবলম্বন করে দেখুন বেশ ভালো ফলাফল পাবেন।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...