The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বিমানে ভ্রমণের আগে যা সবার জেনে নেয়া উচিৎ

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ আপনি কি বিমানে ভ্রমন করতে যাচ্ছেন? কিংবা যাবেন ভাবছেন? তাহলে আপনার জেনে রাখা উচিৎ বিমানে চড়তে হলে কিছু নিয়ম সবাইকে পালন করতে হয়, এসবকে অনেকটাই বিমানের শিষ্টাচার বিধি বলা হয়ে থাকে।


AeroflotAirHostesswallpaper_5_zps6c34b9ae_result

১) বোর্ডিং পাস –

আপনি আগে হোক কিংবা পড়ে হোক বিমান বন্দরে পৌঁছেই বোর্ডিং পাস নিয়ে নিতে ভুলবেন না। আগে ভাগে বোর্ডিং পাস নিয়ে রাখলে সুবিধা অনেক। তাৎক্ষনিক সময় হয়ে গেলে দ্রুত ফ্লাইটে উঠা যায়, শেষ মুহূর্তে ছুটোছুটি করতে হয়না।

২) ওয়াশরুম-

আপনি যদি প্রথম বিমানে উঠার অপেক্ষায় থাকেন তবে বিমানে উঠার আগেই টার্মিনাল থেকে ফ্রেস হয়ে নিন। বাথরুম, টয়লেট যথা সম্ভব করে নিন, এতে করে বিমান উড়ে গেলে আকাশে আপনার টয়লেট করার ক্ষেত্রে আলাদা বিড়ম্বনা পোহাতে হবেনা।

৩) সিট ব্যাল্ট-

বিমানে উঠে নিজের আসনে বসেই প্রধান কাজ হচ্ছে নিজের সিট ব্যাল্ট বেঁধে নেয়া। আপনাকে বিমান বালা কিভাবে সিট ব্যাল্ট বাঁধতে হবে তা শুরুতেই জানিয়ে দিবে। যদি না পারেন তবে বিমান ক্লুদের সাহায্য চাইলে তারাই বেঁধে দিবে।

৪) অক্সিজেন মাক্স-

সিট ব্যল্ট বেঁধেই দেখে নিন আপনার অক্সিজেন মাক্স কোথায় রাখা আছে এবং কিভাবে ব্যবহার করতে হবে। না বুঝলে অবশ্যই বিমান বালাদের সাহায্য নিতে পারেন।

৫) ভদ্রতা/ বিনয়-

বিমানে উঠলে আপনার নিজের ভদ্রতা এবং বিনয় এর দিকে খেয়াল রাখতে হবে, এমন কোন কাজ করবেন না যাতে আপনার পাশের সিটের যাত্রীর সমস্যার কারণ হতে পারে। পাশের সিট খালি থাকলে তাতে পা তুলে বসবেন না, এতে তার পাশের সিটে বসা যাত্রী বিরক্ত হবেন। খেয়াল রাখবেন আপনার কারনে যেন অন্য কারো বিরক্তি না আসে। ফ্লাইটের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা রক্ষা করা আপনার নিজের দায়িত্ব, খাবার খেয়ে তা নির্ধারিত স্থানে ফেলুন।

৬) ফোন ব্যবহার-

বিমানে ফোন কিংবা রেডিও ওয়েব জাতীয় সকল তরঙ্গ ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। ফোন এরোপ্লেন মুডে রাখুন।

৭) বিমানে ঘুমানো-

দীর্ঘ বিমান যাত্রাকাল (৮ ঘন্টা+) আপনাকে বিমানে ঘুমাতেই হবে। অনেকে বসে অল্প জায়গায় ঘুমিয়ে অভস্থ্য না, এক্ষেত্রে সিট্ টা একটু পিছিয়ে দিন, বিমানে যেই বালিশ দেয় সেটা ব্যবহার করুন, খেয়াল রাখবেন আসেপাশের যাত্রীর যেন কোনো সমস্যা না হয়। আর ঘুমিয়ে গেলেও আপনাকে একটু সচেতন থাকতে হবে, আপনার ঘুমের মাঝেই যদি কোনো গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা দেই, বা কোনো পরিস্থিতি তৈরী হয় আপনাকে তখন সতর্ক থাকতে হবে।

৮) বিমান উড্ডয়নের সময়-

মনে রাখবেন বিমান আকাশে উড়ে যাওয়ার সময় একটা ঝাঁকি দেয় এবং আপনার আলাদা একটা উনুভুতি হবে। ক্ষেত্রে লিফট নিছে থেকে হঠাত উপরে উঠে যাওয়ার সময় যে উনুভুতি হয় অনেকটাই তেমন তবে একটু প্রকট। আপনি যদি লো- প্রেসারের হয়ে থাকেন তবে এক্ষেত্রে আপনার কিছুটা সমস্যা হতেই পারে।

৯) বিমান থেকে নামার সময়-

বিমান থেকে নামার সময় আপনার সাথে থাকা ব্যাগ এবং জিনিস পত্র সব ভালোভাবে গুছিয়ে নিন এবং মনে করে সব সাথে নিয়ে নিন। তাড়াহুড়ো করবেন না, শান্ত ভাবে ধিরে সুস্থে নামার প্রস্তুতি নিন।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...